ফজলে করিম চৌধুরীর একান্ত প্রচেষ্টায় দখল থেকে ফিরে ফেলেন মন্দাকিনি তপোবন আশ্রমের জায়গা


শফিউল আলম, রাউজানবার্তা :

রাউজান উপজেলার ২নং ডাবুয়া ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ডের কলমপতি খাসখালী খালের পাশে টিলাভুমিতে ১৯৫৬ সালে কলমপতি এলাকার প্রয়াত গোপন সরকার প্রতিষ্টা করেন মন্দাকিনী তপোবন আশ্রম । কলমপতি মৌজার ১৪ একর ৬০শতক টিলাভুমি মন্দাকিনি তপোবন আশ্রমে প্রতিবৎসর চৈত্র মাসে খাসকালী খালের মধ্যে মাটির বাধ দিয়ে আটক করা পানিতে বারুনী স্নান মেলা করা হতো বারুনী স্নান মেলা উপলক্ষে বিশাল মেলা বসতো। মেলায় কবির গান, মহোৎসব ধর্মীয় আলোচনা সভা করা হতো । এছাড়া ও মন্দাকিনি তপোবন আশ্রমের মন্দিরে প্রতিনিয়ত সনাতন ধর্মীয় অনুসারিরা পুজা করে আসতো ।

পরবর্তী কয়েক এলাকার প্রভাবশালী ব্যক্তি মন্দাকিনি তপোবন আশ্রমের জায়গা দখল করে নিয়ে বৃক্ষের বাগান গড়ে তোলে । গত বিএনপি জামাত জোট সরকারের শাসন আমলে রাউজানের শীর্ষ সন্ত্রাসী আজিজুল হক ও র‌্যাবের ক্রস ফায়োরে নিহত শীষ সন্ত্রাসী জানে আলম ও তার সহযোগিরা মন্দাকিনি তপোবন আশ্রম আগুন লাগিয়ে জ্বালিয়ে দেয়, মন্দিরের মালামাল লুট করে নিয়ে যায় । মন্দিরের জায়গা দখল করে বৃক্সের বাগান গড়ে তোলে । ঐ সময়ে সনাতন ধর্মীয় অনুসারিরা মন্দাকিনী তপোবন আশ্রমে পুজা ও বারুনী স্নান বন্দ্ব করে দেয় ।

বর্তমান সরকার ক্ষমতায় আসলে রেলপথ মন্ত্রনালয় সর্ম্পকিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি এবি এম ফজলে করিম চৌধুরী  এমপি মন্দাকিনিী তপোবন আশ্রমে জায়গা থেকে প্রভাবশালী ব্যক্তিদের দখল মুক্ত করে জায়গাটি মন্দাকিনিী তপোবন আশ্রম কে ফিরিয়ে দেয় । মন্দাকিনী তপোবন আশ্রমের জায়গা প্রভাবশালী ব্যক্তিদের দখল থেকে মুক্ত হওয়ার পর রেলপথ মন্ত্রনালয় সর্ম্পকিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি এবি এম ফজলে করিম চৌধুরী  এমপি ও এলাকার লোকজনের সহায়তায় পাকা করে মন্দির নির্মান করে । প্রতি বৎসর স্নান করার জন্য খাসখালী খালের মধ্যে পাকা গার্ডওয়াল দিয়ে পাকা করে ঘাট নির্মান করে দেয়া হয় বলে জানান মন্দাকিনিী তপোবন আশ্রম পরিচালনা পলিষদের সাধারন সম্পাদক সুধির দে । মন্দাকিনি তপোবন আশ্রমে রাউজানের বিভিন্ন এলাকা থেকে ৩০টি ভুমিহীন সনাতন ধর্মীয় অনুসারী পরিবারকে ঘর বেধে দিয়ে তাদের স্বপরিবারে বসবাস করার সুযোগ করে দেওয়া হয় । মন্দাকিনি তপোবন আশ্রমে যাতায়াতের কোন সড়ক ছিলনা । ফসলী জমির আইর ও কর্ণফুলী ফার্মের উপর দিয়ে মন্দাকিনী তপোবন আশ্রমে সনাতন ধর্মীয় অনুসারিরা যাতায়াত করতো।

বর্তমানে মন্দাকিনিী তপোবন আশ্রমে যাতায়াতের জন্য নাগেশ্বর গার্ডেন সড়ক থেকে মন্দাকিনী তপোবন আশ্রমের টিলা পর্যন্ত এক কিলোমিটার দৈর্ঘ মাটি ভরাট করে সড়ক নির্মান করেছেন মন্দাকিনী তদপোবন আশ্রম পরিচালনা কমিটি । মন্দাকিনি তপোবন আশ্রম পরিচালনা কমিটির সভাপতি এডভোকেট দিলিপ কুমার চৌধুরী বলেন রেলপথ মন্ত্রনালয় সর্ম্পকিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি এবি এম ফজলে করিম চৌধুরীর প্রচেষ্টায় রাউজানের সনাতন ধর্মীয় অনুসারিরা ফিরে পেল মন্দাকিনিী তপোবন আশ্রম । ৩ এপ্রিল মন্দাকিনী তপোবন আশ্রমে বারুনী স্নান মেলায় উপস্থিত সকলেই  সাংসদ এবি এম ফজলে করিম চৌধুরীর প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে ।নিউজ ও বিজ্ঞাপনের জন্য যোগাযোগ করুন:

শফিউল আলম, প্রধান সম্পাদক

সাহেদুর রহমান মোরশেদ, সম্পাদক ও প্রকাশক

মোবাইল- ০১৮১৮-১১৭৪৭০

ইমেইল : raozan786@gmail.com

raozanbarta24. com

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *