রাউজান: ৩৩৩ নাম্বারে খাদ্য সংকট বলে ফোন দেওয়া ৫৬ জনের অধিকাংশ সচ্ছল, নেই কোন খাদ্য সংকট

করোনায় ঘরে খাদ্য সংকট হয়েছে মর্মে ৩৩৩ এ ফোন ইউএনও খাদ্য নিয়ে ফোন করা ব্যক্তির ঘরে উপস্থিত

 

শফিউল আলম, রাউজানবার্তা :

করোনার প্রার্দুভাবের কারনে রাউজানের বিভিন্ন এলাকা থেকে ৫৬ জন ব্যক্তি ৩৩৩ এ ফোন করে তাদের ঘরে খাদ্য সংকট বলে আবেদন করে।

৩৩৩ এ আবেদনকারী ব্যাক্তিদের ঠিকানা ও মোবাইল ফোন নং এর সুত্র ধরে রাউজান উপজেলা নির্বাহী অফিসার জোনায়েদ কবির সোহাগ ও উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন অফিসার নিয়াজ মোরশেদ খাদ্য নিয়ে তাদের ঘরে উপস্থিত হয়ে যাছাই বাছাই করে ১১টি পরিবারের মধ্যে খাদ্য বিতরন করেন।

রাউজান উপজেলা নির্বাহী অফিসার জোনায়েদ কবির সোহাগ বলেন, খাদ্য নিয়ে ৩৩৩ এ ফোন করে আবেদন কারী ব্যক্তিদের ঘরে গিয়ে যে সব পরিবারে খাদ্য সংকট রয়েছে এ সব পরিবারের মধ্যে খাদ্য প্রদান করছি । ৩৩৩ এ ফোন করে খাদ্য সহায়তার জন্য আবেদনকারীর মধ্যে অধিকাংশ সচ্ছল ও তাদের কোন খাদ্য সংকট নেই বলে পরিবার থেকে দাবী করে বলেন, সখের বশিভুত হয়ে ৩৩৩ এ ফোন করা হয়েছে।

১১ মে মঙ্গলবার দুপুরে রাউজান পৌরসভার পাখখাইন্যা পুকুর পাড় এলাকায় আবেদনকারী একটি পরিবারের মোবাইল নম্বরে ফোন দেয় রাউজান উপজেলা নির্বাহী অফিসার জোনায়েদ কবির সোহাগ। ফোন পেয়ে এক মহিলা এসে খাদ্য নিয়ে যেতে চাই। ঐ সময়ে মহিলাকে তার ঘরের সামনে নিয়ে যেতে বললে মহিলা তার ঘরের সামনে নিয়ে যায় উপজেলা নির্বাহী অফিসার জোনায়েদ কবির সোহাগকে। মহিলার ঘরের সামনে উপস্থিত হয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার জোনায়েদ কবির সোহাগ ও উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন অফিসার নিয়াজ মোরশেদ মহিলার ঘর পাকা ঘর দেখতে পায়।

মহিলার কাছে তার পরিবারের খাদ্য সংকট কিনা জানতে চাইলে মহিলা বলেন, আমার ঘরে কোন খাদ্য সংকট নেই । আমার ছেলে সখের বশিভুত হয়ে ৩৩৩ এ ফোন করেছেন । এরপর রাউজান উপজেলা নির্বাহী অফিসার জোনায়েদ কবির সোহাগ ঐ মহিলাকে খাদ্য দিতে চাইলে ঘরে যথেষ্ট পরিমান খাদ্য রয়েছে দাবী করে খাদ্য গ্রহন করেনি বলে জানান রাউজান উপজেলা নির্বাহী অফিসার জোনায়েদ কবির সোহাগ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *