পুরাতন খাসঁখালী খাল ও পুকুর ভরাট করায় সামান্য বৃষ্টি হলে পানিতে ডুবে যায় সড়ক

 

শফিউল আলম, রাউজানবার্তা :

রাউজান উপজেলা পৌর সদরের পৌরসভার ৮নং ওয়ার্ডের প্রাণী সম্পদ অফিসের পুর্ব পাশে দিয়ে পুরাতন খাসঁখালী খাল।

পুরাতন খাসঁখালী খালটি ভরাট হয়ে বর্ষার মৌসুমে জলবদ্বতা সৃষ্টি হওয়ায় রাউজানের সাংসদ ফজলে করিম চৌধুরীর প্রচেষ্টায় ফকির হাট বাজারের পুর্ব থানা রোড থেকে প্রাণী সম্পদ অফিসের পুর্ব পাশে চট্টগ্রাম রাঙ্গামাটি সড়কের উপর ব্রীজ পর্যন্ত রাউজান পৌরসভার মেয়র জমির উদ্দিন পারভেজ খনন করে।

রাউজান পৌরসভার ৮নং ওয়ার্ডের শরীফ পাড়া থেকে সুলতানপুর ছিটিয়া পাড়া পর্যন্ত পুরাতন খাসখালী খালটি রাউজান উপজেলা প্রশাসন খনন করে।

পুরাতন খাসখালী খালের মধ্যবর্তী স্থান প্রাণী সম্পদ অফিসের পুর্বে চট্টগ্রাম রাঙ্গামাটি মহাসড়কের দক্ষিন পাশে দাশ পাড়া এলাকায় পুরাতন খাসঁখালী খালটি কয়েকজন প্রভাবশালী ব্যক্তি ভরাট করে বাড়ীর পরিধি বৃদ্বি করে খালের জায়গায় আর, সি, সি ঢালাই করে সীমানা প্রাচীর নির্মান করে। এছাড়াও দাশ পাড়া এলাকায় পুরাতন খাসখালী খাল ভরাট করে এলাকার লোকজন।

দাশপাড়া এলাকায় পালিত পাড়া সড়কের পাশে ২শত বৎসরের পুরাতন একটি পুকুর ভরাট করে দাশ পাড়া এলাকার এক ব্যক্তি। পুরাতন খাসখালী খাল ভরাট ও সড়কের পাশে বিশাল আয়তনের একটি পুকুর ভরাট করায় বৃষ্টি হলে বৃষ্টির পানি উজান থেকে এসে বাধাপ্রাপ্ত হয়ে পালিত পাড়া সড়কের উপর দিয়ে প্রবাহিত হয়।

রাউজান পৌরসদরের ৮নং ওয়ার্ড দাশ পাড়া ও পালিত পাড়া, শরীফ পাড়া, ঢেউয়া পাড়া এলাকার হাজার হাজার মানুষের চলাচলের সড়ক পালিত পাড়া সড়কটি গত একযুগ ধরে কোন উন্নয়ন কাজ করা হয়নি। সড়কের উপর দিয়ে বর্ষার মৌসুমে পানি চলাচল করায় সড়কটি চট্টগ্রাম রাঙ্গামাটি মহাসড়কের বটতল থেকে পালিত পাড়া অগ্রনী ক্লাব পর্যন্ত পুরো অংশ পুরাতন ইটের সলিং উঠে গিয়ে বড় বড় গর্তের সৃষ্টি হওয়ায়, এলাকার হাজার মানুষকে প্রতিনিয়ত চরম দুর্ভোগের মধ্যে দিয়ে চলাচল করতে হচ্ছে।

১৯ জুন শনিবার ভোররাত থেকে সকাল পর্যন্ত সময়ে বৃষ্টি হলে পালিত পাড়া সড়কটি পানিতে ডুবে যায়। দাশ পাড়া এলাকার বাসিন্দ্বা উজ্জল দাশ গুপ্ত বলেন, সড়কটি এলাকার লোকজন থেকে টাকা তুলে ইটের খোয়া ফেলে বালু দিয়ে উচু করে সড়কটি জনগনের চলাচলের উপযোগী করার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।

রাউজান পৌরসভার ৮নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর এডভোকেট দিলিপ কুমার চৌধুরী বলেন, পালিত পাড়া সড়কের উন্নয়ন কাজের জন্য রাউজানের সাংসদ ফজলে করিম চৌধুরী ৩৫ লাখ টাকা বরাদ্ব দিয়েছে। পালিত পাড়া সড়কের উন্নয়ন কাজের জন্য সাংসদ ফজলে করিম চৌধুরীর দেওয়া বরাদ্ব টাকা দিয়ে উন্নয়ন কাজের টেন্ডারের প্রক্রিয়া চলছে।

রাউজান পৌরসভার কাউন্সিলর এডভোকেট দিলিপ কুমার চৌধুরী রাউজান পৌরসভার ৮নং ওয়ার্ডেও জলিল নগর বাস ষ্টেশন থেকে শুরু হওয়া সাহেব বিবি সড়ক, ঢেউয়া পাড়া অপারাজিতা আশ্রমের পাশ দিয়ে যাওয়া দক্ষিন হিংগলা কলমপতি সড়কের উন্নয়ন কাজের জন্য সাংসদ ফজলে করিম চৌধুরীর সদয় হস্তক্ষেপ কামনা করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *