এ কেমন শত্রুতা!! রাউজানে কৃষকের বরবটি ক্ষেত কেটে উপছে দুর্বৃত্তরা

 

শফিউল আলম, রাউজানবার্তা :

রাউজান উপজেলার ২নং ডাবুয়া ইউনিয়নের কলমপতি গ্রামের দরিদ্র কৃষক সেলিম উদ্দিন ধান ও সব্জি ক্ষেতের চাষাবাদ করে জিবিকা নির্বাহ করে।

কৃষক সেলিম তার বাড়ীর উত্তর পাশে ৮শতক জমিতে অনেক কষ্ট করে বরবটি ক্ষেতের চাষাবাদ করে। কৃষক সেলিমের বরবটি ক্ষেতে বরবটির ফলন এসেছে ।

কৃষক সেলিমের বরবটি ক্ষেতে গত ১০ জুলাই শনিবার ভোররাতে দুবৃত্তরা প্রবেশ করে বরবটি ক্ষেতের গাছ কেটে ফেলে দেয়, বরবটি গাছের লতা গুলো উপছে ফেলে দেয়।

১০ জুলাই শনিবার সকালে কৃষক সেলিম তার বরবটি ক্ষেত দেখতে গেলে বরবটি ক্ষেত উপছে পাড়া দেখে কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন।

কৃষক সেলিম বলেন, গত কয়েকদিন পুর্বে প্রতিবশী হাসানবানুর গরু আসকর চৌধুরী জামে মসজিদের আঙ্গিনায় রোপন করা ফলজ গাছের চারা ও আমার বরবটি ক্ষেতের বরবটি খেলে হাসানবানুকে ডেকে ক্ষেত ও ফলজ গাছের চারা খাওয়ার বিষয়ে বলার সময়ে হাসানবানুর পুত্র মুছা হাতে বাশের লাঠি নিয়ে আমাকে মারার জন্য আসেন। এসময়ে এলাকার লোকজন এসে আমাকে মুছার লাঠির আঘাত থেকে রক্ষা করে।

এ ঘটনার পর হাসান বানু বাদী হয়ে কৃষক সেলিমের বিরুদ্বে ডাবুয়া ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান বরাবরে হাসানবানু ও তার ছেলে মুছাকে মারধর করে বলে অভিযোগ করেন । হাসানবানুর অভিযোগের পরিপেক্ষিতে ডাবুয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আবদুল রহমান চৌধুরী নোটিশ দিয়ে কৃষক সেলিমকে ইউনিয়ন পরিষদ কার্যলয়ে উপস্থিত হতে নির্দেশ দিলে কৃষক সেলিম ইউনিয়ন পরিষদে উপস্থিত হয়।

অভিযোগকারী হাসানবানু উপস্থিত হয়নি। কৃষক সেলিম অভিযোগ করে বলেন, হাসানবানু ও তার ছেলে মুছা রাতেই আমার বরবটি ক্ষেত উপছে ফেলে দিয়েছে ।

বরবটি ক্ষেত উপছে ফেলার বিষয়ে চেয়ারম্যান আবদুল রহমান চৌধুরী, স্থানীয় মেম্বার ওবাইদুল হক চৌধুরী মাহমুদ সহ এলাকার গন্যমান্য ব্যক্তিকে জানিয়েছেন বলে জানান কৃষক সেলিম ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *