Categories
আরো… রাউজান

রাউজানের পল্লী বিদ্যুৎ কর্তৃক কেটে ফেলা গাছের স্হানে গাছ রোপন

শফিউল আলম,রাউজানবার্তা :

রাউজান সদরের সাহেব বিবি সড়কের পাশ থেকে কর্তন করা বিভিন্ন প্রকৃতি গাছের স্থলে নতুন করে আমসহ বিভিন্ন ফলদ চারা রোপন করেছে চট্টগ্রাম পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-২ (রাউজান) সদর কর্তৃপক্ষ। স্থানীয় সাংসদ ও রেলপথ মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি এবিএম ফজলে করিম চৌধুরীর নির্দেশে গতকাল শনিবার সকাল থেকে বিকেল পর্যন্ত ওই সড়কে এসব চারা রোপণ করেন সমিতির কর্মচারীরা। এসব চারা রোপণের তত্ত¡বধায়ক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন পল­ী বিদ্যুৎ বোর্ড সমিতির সভাপতি জসিম উদ্দিন চৌধুরী, সচিব তসলিম উদ্দিন, কর্মকর্তা শাহাদাত হোসেন, ইঞ্জিনিয়ার আদনান চৌধুরী, ইঞ্জিনিয়ার তৌফিক এলাহীসহ অনেকে।

এ প্রসঙ্গে পল্লী বিদ্যুৎ বোর্ড সমিতির সভাপতি জসিম উদ্দিন চৌধুরী ও সচিব তসলিম উদ্দিন বলেন ‘গত শুক্রবার পল­ী বিদ্যুতের লাইন সঞ্চালন ঠিক রাখার জন্য গাছের ডালপালা কর্তন করতে গিয়ে পল্লী বিদ্যুতের কিছু পাহাড়ি শ্রমিক ভুলবশত বিভিন্ন গাছের গোড়ালী কেটে ফেলে। এ নিয়ে জটিলতা সৃষ্টি হলে শনিবার এমপি সাহেবের নির্দেশে কর্তৃপক্ষের তরফ থেকে কর্তনকৃত গাছের পাশে ৬০টি বিভিন্ন জাতের ফলদ চারা লাগিয়ে দেয়া হয়েছে।’ তারা আরো বলেন ‘বৃক্ষরোপণে এবিএম ফজলে করিম চৌধুরী এমপি জাতীয় পুরস্কার পেয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছ থেকে পদক অর্জন করেছেন। তাছাড়া একঘন্টায় ৪ লাখ ৮০ হাজার চারা রোপণ করে সারদেশে বিরল দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছিলেন তিনি। 

একারণে কেউ গাছ কাটলে তিনি সবচেয়ে দুঃখ পান। পল্লী বিদ্যুতের কিছু কর্মি সেটি অনুধাবন করতে না পেরে ভুলবশত বিভিন্ন গাছের গোড়া কেটে ফেলেছিল।’ কর্মকর্তা শাহাদাত হোসেন বলেন ‘গাছের গোড়ালী কাটার বিষয়টি শ্রমিকদের ভুল ছিল। আমরা কর্তনকৃত গাছের প্রতিটি স্থলে (৬০টি) নতুন ফলদ চারা রোপণ করে দিয়েছি।’

প্রসঙ্গত, জলিল নগর বাস ষ্টেশন থেকে শুরু হওয়া সাহেব বিবি সড়কে শুক্রবার পল­ী বিদ্যুৎ কর্তৃপক্ষ বৈদ্যুতিক সঞ্চালন লাইন ঠিক রাখার লক্ষ্যে গাছের ঢালপালা ছাটতে গিয়ে কিছু পাহাড়ি শ্রমিক ৫৯টি মেহগনি ও গামারি গাছের গোড়ালী কেটে ফেলে। এতে উপজেলা নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও নির্বাহী কর্মকর্তা জোনায়েদ কবীর সোহাগ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-২’র ১ জন লাইনম্যান ও ৪ শ্রমিককে আটক করার নির্দেশ দিলে পুলিশ ওই ৫ জনকে আটক করে। গাছ কাটা নিয়ে এলাকায় বেশ তোলপাড় সৃষ্টি হয়।

Categories
রাউজান

রাউজানে অগ্নিকান্ডে পুড়ে গেছে প্রায় ৫০ লাখ টাকার সম্পদ

শফিউল আলম, রাউজানবার্তা :
রাউজানে পৃথক অগ্নিকান্ডে দোকান, ঘর সহ পুড়ে গেছে প্রায় ৫০ লাখ টাকার সম্পদ।

উপজেলার ডাবুয়া ইউনিয়নের পশ্চিম ডাবুয়া মিলন দে”এর বাড়ীতে মন্ট্র দে ঘরের সামনে রাখা শুকনা ঘাষের গাদাঁয় গত ২৯ নভেম্বর শুক্রবার দিবাগত রাত সাড়ে বারটার সময়ে কে বা কাহারা আগুন লাগিয়ে দেয়। অগ্ণিকান্ডের সংবাদ পেয়ে রাউজান ফায়ার ষ্টেশনের দমকল বাহিনীর সদস্যরা দ্রুত ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে আগুন নিয়ন্ত্রনে আনতে সক্ষম হয়। আগুন থেকে ঘর বাড়ী রক্ষা পেলেও মন্টু দে’ এর শুকনা খড়ের গাদাঁটি পুড়ে ছাই হয়ে যায়।

গত ২৯ নভেম্বর শুক্রবার দিবাগত রাত একটার সময়ে রাউজান উপজেলা উপজেলার ৭নং রাউজান ইউনিয়নের মোহাম্মদপুর মাওলানা সৈয়দুল হকের বাড়ীর মাওলানা আবদুল সালামের কাচারী ঘরে অগ্নিকান্ড সংগঠিত হয়। আগুনে মাওলানা আবদুল সালামের কাচাঁরী ঘরটি পুড়ে যায়। এলাকার লোকজন উপস্থিত হয়ে পুকুর থেকে পানি দিয়ে আগুন নেভাতে সক্ষম হয়।

৩০ নভেম্বর শনিবার ভোররাত সাড়ে তিনটার সময়ে রাউজান উপজেলার রমজান আলীর হাট বাজারে অগ্নিকান্ড সংগঠিত হয়। আগুনে আবদুল মোনাফ কোম্পানীর মালিকানাধিন গাউছিায়া ডেকোরের্টাসের দোকান ও দোকানের ৪৫ লাখ টাকার মালামাল পুড়ে যায়। গাউছিয়া ডেকোরেটার্স ছাড়াও রমজান আলী হাট বাজারের লক্ষী নাথ ও রবিন্দ্র নাথের দোকান আগুনে পুড়ে যায়।

অগ্নিকান্ডের সংবাদ পেয়ে রাউজান ফায়ার ষ্টেশন থেকে দমকল বাহিনীর সদস্যরা ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে আগুন নিয়ন্ত্রনে আনতে সক্ষম হয়। রমজান আলীর হাট বাজার ও মাওলানা আবদুল সালামের কাচারীঁ ঘরে কিভাবে অগ্নিকান্ড সংগঠিত হয়েছে তা কেউ বলতে পারছেন। তবে স্থানীয়রা ধারনা করছেন দুর্বৃত্তরা ঘর ও ব্যবসা প্রতিষ্টানে আগুল লাগিয়ে দিয়েছে।

রাউজান ফায়ার ষ্টেশনের ষ্টেশণ অফিসার আশরাফুল ইসলাম বলেন রাউজানে পশ্চিম ডাবুয়ায় আগুনে শকনা খড়ের গাদাঁ পুড়ে যায়। রমজান আলীর হাট বাজারের ডেকোরেটার্সের দেকান সহ তিনটি দোকান পুড়ে যায়। অগ্ন্কিান্ডের সংবাদ পাওয়ার পর দমকল বাহিনীর সদস্যরা ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে আগুন নিয়ন্ত্রন আনায় রমজান আলীর হাট বাজারের কয়েক শতাধিক ব্যবসা প্রতিষ্টান আগুন থেকে রক্ষা পায়।

Categories
রাউজান

রাউজানের বিভিন্ন সড়কের পাশে রোপন করা ফলদ বৃক্ষ এলাকার সৌন্দর্য বর্ধন করেছে

শফিউল আলম, রাউজানবার্তা : 

রাউজান উপজেলার পুর্ব গুজরা ইউনিয়নের এবি এম ফজলে করিম চৌধুরী সড়কের  উত্তর গুজরা কমলার পিতার সেতু থেকে শুরু হয়ে পুর্ব গুজরা ইউনিয়ন ভুমি অফিসের সীমানা পর্যন্ত সড়কের দু পাশে রোপন করা ফলদ বৃক্ষের গাছ গুলো ফলন দিতে শুরু করেছে । 

সড়কের পাশে রোপন করা ফলদ বৃক্ষের গাছ গুলো এলাকার সৌন্দর্যকে বৃদ্বি করেছে।  এবি এম ফজলে করিম চৌধুরী সড়কের পাশে ছাড়া ও রাউজানের পুর্ব গুজরা ইউনিয়নের রাউলী সড়ক, পশ্চিম আধার মানিক সড়ক, অলিমিয়ার হাট থেকে নতুন বাজার সড়ক,ওয়াইস মিয়া চৌধুরী সড়ক, হাজীর পুল সড়ক,আধার মানিক সেকসন -২ সড়ক, হজরত বশরত আলী সড়ক, বড়ঠাকুর পাড়া সিকদার ঘাটা সড়ক, নতুন বাজার কদলপুর সড়ক, বামা চরন সড়কের দুপাশে রোপন করা ফলদ বৃক্ষের চারা বর্তমানে গাছে পরিণত হয়েছে। 

সড়কের পাশে রোপন করা ফলদ বৃক্ষের গাছ গুলোতে ফলন এসেছে। পুর্ব গুজরা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মুক্তিযোদ্বা আব্বাস উদ্দিন আহম্মদ বলেন, রেলপথ মন্ত্রনালয় সর্ম্পকিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি এবি এম ফজলে করিম চৌধুরী এমপির সহায়তায় রাউজান উপজেলা কৃষি সম্প্রসারন অধিদপ্তর ও রাউজান উপজেলা প্রশাসনের প্রচেষ্টায় পুর্ব গজরা ইউনিয়নে বিভিন্ন সড়কের পাশে ২০ হাজার ফলদ বৃক্ষের চারা রোপন করা হয় । 

সড়কের পাশে রোপন করা ফলদ বৃক্ষের চারাগেুলো প্রতিনিয়ত পরিচর্যা করে ফল গাছে পরিনত করা হয়েছে। সড়কের পাশে ছাড়া ও পুর্ব গুজরা ইউনিয়ন পরিষদের ভবনের ছাদে চেয়ারম্যান আব্বাস উদ্দন আহম্মদের বাড়ীর ছাদে ও বাড়ীর আঙ্গিনায় রোপন করা হয়েছে ফলদ বৃক্ষেরা চারা । রাউজান পুর্ব গুজরা পুলিশ তদন্ত কেন্দ্র ভবনের আঙ্গিনায় রোপন করা হয়েছে ফলদ বৃক্ষের চারা । 

পুর্ব গুজরা ইউনিয়নের বিভিন্ন সড়কের পাশে রোপন করা ফলদ বৃক্ষের মধ্যে রয়েছে বিভিন্ন প্রজাতির আম গাছ, আমলকি, আমড়া, হরিতকি, বেল, জাম, কাঠাল, জলপাই, তেতুল। এছাড়া ও সড়কের পাশে শিক্ষা প্রতিষ্টান, ধর্মীয় প্রতিষ্টানের আঙ্গিনায় ফলদ বৃক্ষের চারা ও তাল গাছের বীজ রোপন করা হয়েছে । 

রাউজান উপজেলা উপ সহকারী কৃষি কর্মকর্তা সনজিব কুমার সুশীল জানান,রেলপথ মন্ত্রনালয় সর্ম্পকিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি এবি এম ফজলে করিম চৌধুরী এমপির একান্ত প্রচেষ্টায় রাউজানের ১৪টি ইউনিয়ন পৌর এলাকায় সড়কের পাশে ও শিক্ষা প্রতিষ্টান সামাজিক সাংস্কৃতিক সংগঠন, ধর্মীয় প্রতিষ্টানের আঙ্গিনায় ফলদ গাছের চরা রোপন করা হয়েছে । রোপন করা বৃক্ষের চারা বর্তমানে গাছে পরিনত হয়ে গাছে ফলন দেওয়া শুরু করেছে ।  

Categories
রাউজান

রাউজানে সড়কের গাছ কাটল পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি, আটক ২ কর্মকর্তা সহ ৪ শ্রমিক

শফিউল আলম, রাউজানবার্তা :

রাউজানের সাহেব বিবি সড়কের পাশে রোপন করা ৫৯টি মেহগনি ও গামরী গাছ গোড়ালী দিয়ে কেটে ফেলল পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি ২ এর শ্রমিকেরা। গাছ কাটার অপরাধে বন আইনে মামলা, আটক ২ কর্মকর্তা সহ ৪ শ্রমিক। 

রাউজান উপজেলার জলিল নগর বাস ষ্টেশন থেকে শুরু হওয়া সাহেব বিবি সড়কটি রাউজান পৌরসভার ঢেউয়া পাড়া হয়ে ৭নং রাউজান ইউনিয়নের পশ্চিম রাউজান হরিশখান পাড়া, ভাঙ্গার হাট হয়ে পশ্চিম রাউজান জমিদার আমিরজ্জমা চৌধুরীর বাড়ীর পাশ দিয়ে রাউজান ইউনিয়নের রশিদর পাড়া চান মিয়া চৌধুরী সড়কের সাথে সংযুক্ত। 

সাহেব বিবি সড়কের পাশে রেলপথ মন্ত্রনালয় সর্ম্পকিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি এবি এম ফজলে করিম চৌধুরী এমপির নির্দেশে এলাকার লোকজন মোহগনি গাছ, গামরী গাছের চারা রোপন কওে গত কয়েক বৎসর পুর্বে । সড়কের পাশে সারি সারি রোপন করা গাছগুলে মাঝারী আকারের হয়েছে। সারি সারি গাছ গুলো এলাকাকে অপরুপ সৌন্দর্য বৃদ্বি করেছে । সড়কের পাশে রোপন করা গাছের ছায়া দিয়ে প্রতিদিন সড়ক দিয়ে এলাকার লোকজন ও স্কুল কলেজ, মার্দ্রাসার শিক্ষার্থীরা চলাচল করে। 

সড়কের পাশে রোপন করা গাছের উপর দিয়ে চট্টগ্রাম পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি ২ এর বৈদ্যুতিক লাইন রয়েছে। ২৯ নভেম্বর ভোর ৬ টা থেকে সকাল ৮টার সময়ে চট্টগ্রাম পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি ২ এর জুনিয়র প্রকৌশলী ফজলু, লাইনম্যান রফিক, অজিতের নেতৃত্বে সাহেব বিবি সড়কের পাশে রোপন করা গাছগুলো গোড়ালী কেটে গাছগুলো কাটা হয় । বৈদ্যুৎতিক লাইনের নিচে সড়কের পাশে গাছগুলোর ডাল পালা না কেটে গাছের গোড়ালী কেটে গাছগুলো কেটে ফেলা হয় । 

গাছগুলো কাটার সময়ে রাউজান উপজেলার ৭নং রাউজান ইউনিয়নের পশ্চিম রাউজান ফকির মোহাম্মদ চৌধুরী বাড়ীর বাসিন্দ্বা ফরিদ মিয়া চৌধুরী সহ এলাকার লোকজন গাছ কাটতে বাধা দিলে ও কোন বাধা না শুনে পল্লি বিদ্যুৎ সমিতি ২ এর কর্মকর্তার নির্দেশে অস্থায়ী ভাবে নিয়োগ পাওয়া শ্রমিকেরা গাছগুলো গোড়ালী কেটে গাছগুলো ধংস করে । 

পরবর্তী চট্টগ্রাম রাঙ্গামাটি মোটর মালিক সমিতির সভাপতি আলহাজ্ব সৈয়দ হোসেন কোম্পানী, হরিশখান এলাকার বাসিন্দ্বা ফজলুল করিম ফজু, মনির, মেম্বার এখতেয়ার উদ্দিন গাছ কাটার বিষয়টি রেলপথ মন্ত্রনালয় সর্ম্পকিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি এবি এম ফজলে করিম চৌধুরী এমপিকে ফোন করে জানান ।রেলপথ মন্ত্রনালয় সর্ম্পকিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি এবি এম ফজলে করিম চৌধুরী এমপি সড়ক থেকে নির্বিচারে গাছ কাটার সংবাদ পেয়ে রাউজান উপজেলা নির্বাহী অফিসার জোনায়েদ কবির সোহাগকে বিষয়টি ফোন করে সরেজমিনে এসে ব্যবস্থা গ্রহন করার নির্দেশ দেয়। 

রাউজান উপজেলা নির্বাহী অফিসার জেনায়েদ কবির সোহাগ, চট্টগ্রাম পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি ২ এর জেনারেল ম্যানেজার আবুল কালাম আজাদ ও রাউজান ঢ্লাার মুখ বন বিভাগের ষ্টেশন অফিসার আবদুর রশিদ, রাউজান থানার পুলিশকে নিয়ে ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে সড়কের পাশে থেকে গাছ কাটার দৃশ্য পরিদর্শন করেন । 

সড়কের পাশে রোপন করা গাছের ডালপালা না কেটে গাছের গোড়ালী কেটে গাছগুলো ধংস করার অপরাধে ঘটনাস্থলে উপস্থিত হওয়া চট্টগ্রাম পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি ২ এর জুনিয়র প্রকৌশলী ফজলু, লাইনম্যান রফিক, ও চারজন উপজাতীয় অস্থায়ী শ্রমিকেকে আটক করে পুলিশ রাউজান উপজেলা নির্বাহী অফিসার জেনায়েদ কবির সোহাগের নির্দেশে। 

উপজেলা নির্বাহী অফিসার জোনায়েদ কবির সোহাগ চট্টগ্রাম পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি ২ এর জুনিয়র প্রকৌশলী ফজলু, লাইনম্যান রফিক, অজিত ও চার শ্রমিকের বিরুদ্বে বন আইনে মামলা করার জন্য বন বিভাগের রাউজান ঢালার মুখ ষ্টেশন অফিসার আবদুর রশিদকে নির্দেশ প্রদান করে। বন বিভাগের রাউজান ঢালার মুখ ষ্টেশণ অফিসার আবদুর রশিদ বাদী হয়ে রাউজান থানায় চট্টগ্রাম পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি ২ এর জুনিয়র প্রকৌশলী ফজলু, লাইনম্যান রফিক, অজিত ও চার শ্রমিকের বিরুদ্বে বন আইনে মামলা দায়ের করে বলে জানান  বন বিভাগের রাউজান ঢালার মুখ ষ্টেশন অফিসার আবদুর রশিদ । 

সড়কের পাশে থেকে কর্তন করা গাছগুলো জব্দ¦ করা হয়েছে । স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তরের আওতাধিন সাহেব বিবি সড়কের পাশ থেকে ৫৯ টি গাছ কর্তনের জন্য স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তরকে জানানো হয়নি বলে জানান রাউজান উপজেলা প্রকৌশলী আবুল কালাম । 

বন বিভাগের রাউজান ঢালার মুখ ষ্টেশন অফিসার আবদুর রশিদ বলেন সড়কের পাশে ও যে কোন স্থান থেকে গাছ কাটতে হলে বন ও পরিবেশ অধিদপ্তর থেকে অনুমতি নিতে হয় । কোন অনুমতি না নিয়ে চট্টগ্রাম পল্লী বিদু্যুৎ সমিতি সড়কের পাশে রোপন করা গাছগুলো কেটে ফেলেছে । 

চট্টগ্রাম পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি ২ এর জেনারেল ম্যানেজার আবুল কালাম আজাদ বলেন, বৈদ্যুৎতিক লাইনের নিচে সড়কের পাশে গাছগুলোর ডাল পালা কাটার নির্দেশনা থাকলে ও চট্টগ্রাম পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি ২ এর জুনিয়র প্রকৌশলী ফজলু, লাইনম্যান রফিক, ও চারজন উপজাতীয় অস্থায়ী শ্রমিক গাছের ডালপালা না কেটে গাছগুলোর সম্পুর্ণভাবে কেটে ফেলেছে । নির্দেশনাকে উপেক্ষা করে গাছগুলো কেটে ফেলার অপরাধে চট্টগ্রাম পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি ২ এর জুনিয়র প্রকৌশলী ফজলু, লাইনম্যান রফিক, অজিতের বিরুদ্বে ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে 

Categories
রাউজান

রাউজানে ব্যাবসায়ির চার লাখ টাকা ছিনতাই

শফিউল আলম, রাউজানবার্তা : 

রাউজানে দোকান থেকে বাড়ি ফেরার পথে এক ব্যবসায়ীকে আহত করে নগদ তিন লাখ দশ হাজার টাকা, মোবাইলের রিচার্জ কার্ড, মোবাইল সেট, মোবাইল কোম্পানীর ডিভাইসসহ প্রায় চারলাখ টাকার জিনিসপত্র ছিনতাই করে নিয়েছে দুর্বৃত্তরা। 

এই ঘটনায় গতকাল বৃহস্পতিবার (রাতে এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত) মামলা দায়েরের জন্য এজাহার প্রস্তুত করা হয়েছে। ছিনতাইয়ের ঘটনায় সম্পৃক্ততা থাকার অপরাধে স্থানীয় চেয়ারম্যানসহ জনতা দুইজনকে ধরে পুলিশে সোপর্দ করেছে। 

ছিনতাইয়ের শিকার ওই ব্যবসায়ী হলেন উপজেলার চিকদাইর ইউনিয়নের ৩নম্বর ওয়ার্ডের মোবারক আলী ফকিরের বাড়ির মো. সামশুল আলমের ছেলে জহুরুল আলম (২৮)। তিনি চিকদাইর ইউনিয়নস্থ আজিজিয়া স্কুলের পাশে শাহা আকবরিয়া ডিপার্টমেন্টাল স্টোর নামক একটি ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের মালিক।

মামলা দায়েরের জন্য প্রস্তুত করা এজাহারে জহুরুল আলম অভিযোগ করেছেন ‘আমি বুধবার দিবাগত রাতে ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ করে বাড়ি যাওয়ার পথে আজিজিয়া স্কুলের দক্ষিণ-পূর্ব পাশে জহিদি পুকুরের দক্ষিণ পাড়ে পৌঁছলে পশ্চিম ডাবুয়া এলাকার মৃত সমশু মিয়ার ছেলে মো. মনজু (৩০), একই এলাকার আব্দুল ছালামের ছেলে মো. রিজুয়ান (৩৫) ও চিকদাইর লুদি গোমস্তার বাড়ির মোহাম্মদ রফিকের ছেলে (২৪)সহ ৪-৫ জন আমার চোখে টর্চলাইটের আলো ফেলে পথরোধ করে। এরপর তারা আমাকে কিল, ঘুষি, লাথি মেরে জখম করে আমার হাতে থাকা শপিং ব্যাগটি কেড়ে নেয়। ওই শপিং ব্যাগে বিকাশের নগদ ৩ লাখ ১০ হাজার টাকা, ৩০ হাজার টাকা মূল্যের বিভিন্ন মোবাইল কোম্পানীর মোবাইল রিচার্জ কার্ড, ৫টি মোবাইল, রবি কোম্পানীর ১টি ডিভাইসসহ বিভিন্ন মূল্যেমান জিনিসপত্র নিয়ে যায়।  সব মিলিয়ে ছিনিয়ে নেয়া বিভিন্ন জিনিসপত্রের মূল্যে প্রায় চার লাখ টাকা।’ ঘটনার সময় ধস্তাধস্তিতে মূল আসামী মনজুর শীতের পোষাকটি রেখে পালিয়ে যায়। ওই পোষকটি ব্যবসায়ী জহুরুল আলম স্থানীয় চেয়ারম্যানের কাছে প্রমাণ হিসেবে হস্তান্তর করেছে।  

এ প্রসঙ্গে চিকদাইর ইউপি চেয়ারম্যান প্রিয়তোষ চৌধুরী গতকাল বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় তার ইউপি কার্যালয়ে সাংবাদিকদের বলেন ‘ছিনতাইয়ের খবর পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে আমি ও এলাকার মেম্বার মো. হানিফ ঘটনাস্থলে পৌঁছি। পরে থানা পুলিশকে খবর দেয়া হলে থানার এ.এস.আই তরুন চাকমা নামের এক অফিসার ঘটনাস্থলে এসে ভিকটিমের চিহ্নিত দুর্বৃত্তদের ধরার জন্য অভিযান চালায়। চেয়ারম্যান প্রিয়তোষ চৌধুরী আরো বলেন ‘রাতে এ ঘটনার সঙ্গে জড়িত সন্দেহে চিকদাইর ৬নম্বর ওয়ার্ডের আবু তাহেরের ছেলে ইয়াবা ব্যবসায়ী জানে আলমকে (২৮) পুলিশে সোপর্দ করা হয়। এছাড়া ছিনতাইয়ের শিকার জহুরুল আলমের তথ্যর ভিত্তিতে ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকায় চিকদাইর লুদি গোমস্তার বাড়ির মোহাম্মদ রফিকের ছেলে (২৪) বৃহস্পতিবার দুপুরে আটক করা হয়। সন্ধ্যায় তাকে থানা পুলিশের কাছে সোপর্দ করা হয়েছে। অন্য দুইজন পলাতক রয়েছে।’

ঘটনাস্থল পরিদর্শনকারী থানার এ.এস.আই তরুন চাকমা বৃহস্পতিবার রাতে বলেন ‘ভিকটিম বৃহস্পতিবার থানায় এসেছেন। তারা মামলা দিলে মামলা গ্রহণ করা হবে। তবে ওই ঘটনায় স্থানীয় চেয়ারম্যান ও এলাকাবাসী জানে আলম নামের একজনকে রাতেই আমাদের (পুলিশের) হাতে তুলে দেন। আটক যুবকটি ওই ঘটনায় জড়িত আছে কিনা যাচাই করা হচ্ছে।’

এদিকে স্থানীয় বাসিন্দারা এই ছিনতাইয়ের ঘটনায় ক্ষোভে ফুঁসছেন। এলাকার অনেকে বলেছেন, ছিনতাইকারী ওই তিনজন ছাড়াও তাদের সঙ্গী ইয়াবা ব্যবসায়ী আরো ২ জন মিলে এলাকাকে অশান্ত করে তোলেছে। এরা হলো, জানে আলম, মাহাবুল আলম, মো. খোকন, মো. মঞ্জু। ছিনতাইকারী এবং এসব চিহ্নিত ইয়াবা ব্যবসায়ীকে গ্রেপ্তার করতে না পারলে এ এলাকার মানুষ অশান্তিতে ভূগবে এবং এলাকার উঠতি যুবকরা আরো ব্যাপক আকারে মাদকাসক্ত হয়ে পড়বে।  

রাউজান থানার ওসি কেপায়েত উল্ল্রাহ গতকাল ২৮ নভেম্বর রাত সাড়ে ৯ টার সময়ে বলেন ঘটনার ব্যাপারে মামলার প্রস্তুতি চলছে ।

Categories
রাউজান

ডাবুয়া আমীর চৌধুরী জামে মসজিদে ঈদে মিলাদুন্নবী (দঃ) উদযাপন

শফিউল আলম, রাউজানবার্তা :

রাউজান পশ্চিম ডাবুয়া আমির চৌধুরী জামে মসজিদে পবিত্র জসনে ঈদে মিলাদুন্নবী (দঃ) উদযাপন উপলক্ষে আজিমুশশান সুন্নী সম্মেলন গত ২৪ নভেম্বর রবিবার রাতে আল্লামা অধ্যক্ষ সৈয়দ আহছান হাবিব (মা.জি.আ) সভাপতিত্বে অনুষ্টিত হয়।

এলাকাবাসী ও ইমাম আলা হযরত, গাজী শেরে বাংলা (রঃ) স্মৃতি সংসদের ব্যবস্থাপনায় আয়োজিত মাহফিলে প্রধান অতিথি ছিলেন পীরে ত্বরিকত আওলাদে রাসুল, শাহজাদায়ে গাউছুল আযম সৈয়দ ডাক্তার মেশকাতুন নুর আল হাসানী আল মাইজভান্ডারী (মা.জি.আ)। মাওলানা হাফেজ পেয়ারুর সঞ্চালনায় উদ্বোধক ছিলেন আমির চৌধুরী জামে মসজিদের খতিব সাংবাদিক মাওলানা মুহাম্মদ বেলাল উদ্দিন।

প্রধান বক্তা ছিলেন উপাধ্যক্ষ আলহাজ্ব আল্লামা মুফতি জসিম উদ্দিন আল কাদেরী (মা.জি.আ)। ত্বকরির করেন আল্লামা আবুল বশর মাইজভান্ডারী। উপস্থিত ছিলেন আলহাজ্ব আবদুস সালাম মাষ্টার, মাওলানা কলিমুল্লাহ নুরী, মাওলানা জামাল উদ্দিন হোসাইনী, মসজিদের পেশ ইমাম মাওলানা হাফেজ নুরুল আবছার, মাওলানা নুরুল ইসলাম রেজভী, মাওলানা মুনছুর আলম আনসারী, সিরাজুল ইসলাম, ফরিদুল আলম, রফিক সওদাগর, নুরুল আলম আইয়ুব, অধ্যাপক আবু তৈয়ব, মুহাম্মদ সালাউদ্দিন, মুহাম্মদ আরমান হোসাইন প্রমুখ। পরে মিলাদ কিয়াম ও আখেরী মোনাজাত অনুষ্টিত হয়।

Categories
রাউজান

রাউজানে সম্পত্তির বিরোধের জের ধরে মিথ্যা শ্লীলতাহানির মামলায় ফাঁসানোর অভিযোগে সাংবাদিক সম্মেলন

শফিউল আলম, রাউজানবার্তা :

গত ৪ অক্টোবর রাউজান থানায় শ্লীলতাহানির মামলায় জেলহাজতে থাকা রাউজানের বাগোয়ান ইউনিয়নের বয়োবৃদ্ধ মঞ্জু মিয়ার পরিবার গতকাল ২৭ নভেম্বর এক সাংবাদিক সম্মেলন করে জায়গার সম্পত্তির বিরোধ থেকে মঞ্জু মিয়ার নামে হয়রানী মূলক মিথ্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন।

হাজত বন্দি মঞ্জু মিয়ার স্ত্রী ও তার সন্তানরা সাংবাদিকদের কাছে অভিযোগ করেন তার ভিটার সীমানা নিয়ে প্রতিবেশি আবু জাফর গংদের বিরোধ চলে আসছিল বেশ কয়েক বছর থেকে। এই নিয়ে পাল্টাপাল্টি মামলা চলমান আছে আদালতে। প্রতিপক্ষরা মঞ্জু মিয়ার পরিবারকে চাপে রাখতে অপর এক প্রতিবেশির স্কুল পড়ুয়া কন্যাকে ভিকটিম সাজিয়ে মঞ্জু মিয়ার নামে মিথ্যা মামলা করেছেন।

সাংবাদ সম্মেলনে মঞ্জু মিয়ার একপুত্র নেছার উদ্দিনের অভিযোগ করে দাবি করেন তার বাবাসহ তারা দুই ভাই অসবাবপত্র তৈরীর কারখানায় থাকে। যাকে দিয়ে প্রতিপক্ষরা শ্লীলতাহানির মামলা সাজিয়েছে সেই স্কুল ছাত্রীর ঘর তাদের সাথেই। সে তার বোনোর বন্ধবি। একই সাথে তারা স্কুলে যাওয়া আসা করতো। আমাদের ঘরে এসে ওই ছাত্রী সবসময় আড্ডা দিতো।

মঞ্জু মিয়ার স্ত্রী হালিমা খাতুন দাবি করেন শ্লীলতাহানির অভিযোগকারী পরিবারকে মোটা অংকে আর্থিক প্রলোভনে ফেলে জাফর গং নিরহ স্কুল ছাত্রীকে গিনিপিক বানিয়েছে। মঞ্জু মিয়ার স্ত্রী সাংবাদিকদের কাছে প্রশ্ন রেখে বলেন ২৯ সেপ্টেম্বর মঞ্জু মিয়া ওই ছাত্রীর শ্লীলতাহানি করেছে বলে প্রতিপক্ষরা দাবি করলেও ৪ অক্টোবর কেন মামলা করা হলো। ঘটনাটি কেনই বা জানল না পাড়া প্রতিবেশিরা। একই সাথে বিরোধীয় জায়গা গ্রাস করতে মঞ্জু মিয়াকে মিথ্যা মামলায় জড়িয়ে হয়রানী করছে। তিনি প্রকৃত ঘটনা তদন্তে আদালত ও সংশ্লিষ্ট প্রশাসনের সহায়তা কামনা করেছেন।

উল্লেখ্য যে, থানায় দায়ের করা মামলার আসামী হিসাবে মঞ্জু মিয়া আদালতে আত্মসমর্পন করলে বিজ্ঞ আদালত তাকে জেল হাজতে পাঠায়। সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন মঞ্জু মিয়া স্ত্রী হালিমা বেগম, মঞ্জু মিয়ার ভাই নুরুল আলম, মঞ্জু মিয়ার কনিষ্ট পুত্র নেজাম উদ্দিন, মঞ্জু মিয়ার শ্যালক আবুল কালামসহ পাড়ার বেশ কয়েকজন নারী পুরুষ।

Categories
রাউজান

বাল্য বিবাহ, যৌতুক, ইভটিজিং, মাদক, জঙ্গীবাদ প্রতিরোধে প্রশাসন প্রস্তুতঃ জোনায়েদ কবির

শফিউল আলম, রাউজানবার্তা :

বাল্য বিবাহ ও যৌতুক, ইভটিজিং নারী ও শিশু নির্যাতন, মাদক এবং জঙ্গীবাদ প্রতিরোধ বিষয়ে স্কুল পর্যায়ে সচেতনতামূলক ক্যাম্পেইন অনুষ্ঠিত হয়েছে।

২৬ নভেম্বর মঙ্গলবার রাউজান এস.কে.সেন স্কুল এণ্ড কলেজ মাঠে শিক্ষার্থীদের নিয়ে এই ক্যাম্পেইন অনুষ্ঠিত হয়। রাউজান উপজেলা পরিষদ আয়োজিত ও এনজিও সংস্থা জাইকার সার্বিক সহযোগীতায় অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন নূর মোহাম্মাদ, প্রধান অতিথি ছিলেন রাউজান উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট জোনায়েদ কবির সোহাগ,

বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান ফৌজিয়া খানম মিনা, পাহাড়তলী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান রোকন উদ্দিন, পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা লিকসন চৌধুরী, অতিথি ছিলেন শিক্ষা অফিসার তৌহিদ তালুকদার, সমাজ সেবা অফিসার মনির হোসেন, রাউজান উপজেলা ডেভলপম্যান্ট ফ্যামিলিটেঢর অর্পণ চাকমা, এডভোকেট আমিনুল হক, আলাউদ্দিন ইউসুফ, আবদুর রহমান, ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ আবদুর রাজ্জাক, প্রভাষক স্বদেশ চক্রবর্তী, শিক্ষক আবদুর গফ্ফুর, শিক্ষক আবদুল হালিম, ছাত্রলীগ নেতা মোহাম্মদ সাল্লাহ উদ্দিন প্রমূখ।

প্রধান অতিথি রাউজান উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জোনায়েদ কবির সোহাগ বলেন, বাল্য বিয়ে কোন ভাবে হতে দেবো না। বাল্য বিবাহ, যৌতুক, ইভটিজিং, মাদক, জঙ্গীবাদ প্রতিরোধে প্রশাসন প্রস্তুত রয়েছে। রাউজান একটি শান্তির জনপদ। রাউজানের সাংসদ প্রতিটি বিষয়ে অবগত আছেন। সুতারাং কেউ অপরাধ করে পার পাবে না। তিনি স্কুলের শিক্ষার্থীর বই মনোযোগী হয়ে উজ্জ্বল ভবিষ্যৎ জীবন গঠনের আহবান জানান।ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান রোকন উদ্দিন বলেন, পাহাড়তলী ইউনিয়ন বাল্য বিবাহ মুক্ত এলাকা। আমরা চেষ্টা করি সামাজিক ভাবে ছোট ও অপ্রীতিকর ঘটনা গুলো নিরসন করতে।

Categories
আরো… রাউজান

প্রযুক্তির মাধ্যমে মহিলাদের ক্ষমতায়ন শীর্ষক উঠান বৈঠক পূর্ব গুজরায়

শফিউল আলম, রাউজানবার্তা :

ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার লক্ষে তথ্য, যোগাযোগ ও প্রযুক্তিরর মাধ্যমে মহিলাদের ক্ষমতায়ন প্রকল্প-২ এর অংশ হিসাবে উঠান বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে।

২৬ নভেম্বর সকালে পূর্ব ইউনিয়ন পরিষদের হল রোমে পূর্ব গুজরা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আব্বাস উদ্দিনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন রাউজান উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট জোনায়েদ কবির সোহাগ, বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান ফৌজিয়া খানম মিনা, সমাজ সেবা অফিসার মনির হোসেন, সহকারী কৃষি কর্মকর্তা সনজিত সুশীল, সুবর্ণ সুমাইয়া, উপজেলা পরিষদ জামে মসজিদের পেশ ইমাম মওলানা আবদুল মতিন, মহিলা ইউপি সদস্যা রুবিনা ইয়াসমিন রুজী প্রমূখ।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট বির সোহাগ বলেন বর্তমান সরকারের নির্বাচনী অঙ্গীকার ছিল ডিজিটাল দেশ বাস্তবায়ন। সে লক্ষে তথ্য প্রযুক্তির সেবা সবর্ত্র ছড়িয়ে পড়েছে।

উপজেলার ডিজিটাল তথ্য সেবা সেন্টার সর্বক্ষণ সব ধরনের সেবা প্রদান করে যাচ্ছে। তিনি বলেন, প্রযুক্তির মাধ্যমে মহিলাদের ক্ষমতায়ন বৃদ্ধি সরকারের ইতিবাচক একটি প্রকল্প। আমাদের বাল্য বিয়ে প্রবনতা কোন অবস্থাতে মেনে নেয়া হবে না।

Categories
রাউজান

রাউজানে এয়াসিন শাহ উচ্চ বিদ্যালয়ে বাল্য বিবাহ, যৌতুক, ইভটিজিং, নারী ও শিশু নির্যাতন মাদক ও জঙ্গিবাদ প্রতিরোধ ক্যাম্পেইন অনুষ্টিত

শফিউল আলম, রাউজানবার্তা : 

রাউজানের হজরত এয়াসিন শাহ উচ্চ বিদ্যালয়ে  বাল্য বিবাহ, যৗতুক, ইভটিজিং, নারী ও শিশু নির্যাতন মাদক ও জঙ্গিবাদ প্রতিরোধ ক্যাম্পেইন অনুষ্টিত হয় । 

 ২৫ নভেম্বর দুপুর ১ টার সময়ে এয়াসিন শাহ কলেজ হলে হজরত এয়াসিন শাহ উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের  উদ্যেশে বাল্য বিবাহ, যৗতুক, ইভটিজিং, নারী ও শিশু নির্যাতন মাদক ও জঙ্গিবাদ প্রতিরোধ ক্যাম্পেইন অনুষ্টানে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন রাউজান উপজেলা চেয়ারম্যান এহেসানুল হায়দার বাবুল । 

রাউজান উপজেলা নির্বাহী অফিসার জেনায়েদ কবির সোহাগের সভাপতিত্বে য়ুব নেতা মনসুর আলমের সঞ্চালনায় অনুষ্টিত বাল্য বিবাহ, যৗতুক, ইভটিজিং, নারী ও শিশু নির্যাতন মাদক ও জঙ্গিবাদ প্রতিরোধ ক্যাম্পেইন অনুষ্টানে বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন রাউজান উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান ফৌজিয়া খানম মিনা, রাউজান উপজেলা যুব উন্নয়ন অফিসার শাহ ই জাহান, উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার তৌহিদ তালুকদার , 

উপজেলা উপ সহকারী কৃষি কর্মকর্তা সনজিব কুমার সুশীল, স্থানীয় সরকার বিভাগের উপজেলা ডেভেলপমেন্ট ফ্যাসিলিটেটর অর্নব চাকমা, হলদিয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মুক্তিযোদ্বা শফিকুল ইসলাম, হলদিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক রুনু ভট্টচার্য্য, আওয়ামী লীগ নেতা সোলায়মান মাষ্ট্রার, এস এম বাবর। অনুষ্টানে আরো বক্তব্য রাখেন হজরত এয়াসিন শাহ কলেজেল অধ্যক্ষ কৃষিবিদ জাহাঙ্গীর আলম প্রমুখ ।