রাউজানে ২শত ৩২ পুজা মন্ডপে ৪ অক্টোবর থেকে দুর্গোৎসব শুরু হবে ; মৃৎ শিল্পিরা প্রতিমা তৈরীতে ব্যস্ত সময় অতিবাহিত করছে

শফিউল আলম, রাউজানবার্তা :

আগামী ৪ অক্টোবর থেকে সনাতনী ধর্মীয় অনুসারীদের শারদীয় দুর্গোৎসব শুরু হবে দেশব্যাপী। চট্টগ্রাম জেলার রাউজান উপজেলায় ১৪টি ইউনিয়ন ও পৌর এলাকায় ২শত ৩২ টি পুজা মন্ডপে এবার শারদীয় দুর্গোৎসব পালিত হবে। ((((বিজ্ঞপ্তি- মোবাইলের যে কোন সমস্যা, মেরামত/ মোবাইল ফ্লাশ/ ভার্সন আপডেট / কান্ট্রি লক, জিমেইল লক, এমআই লক, আই ফোনের আইক্লাউড লক সহ যেকোন লক খুলতে যোগাযোগ করুন- ১। রহমানিয়া এন্টারপ্রাইজ সেইলস্ & সার্ভিসিং, ভারতশ্বরী প্লাজা, পথেরহাট, নোয়াপাড়া, রাউজান, চট্টগ্রাম।মোবাইল-01719-117470 ))) ২. মোবাইল থেরাপী, শাহ আমানত সিটি কর্পোরেশন মার্কেট, দোকান নং-৬৯, ২য় তলা, জুবলী রোড, আমতল, চট্টগ্রাম। মোবাইল-01719-117470 )))

সনাতনী ধর্মীয় অনুসারীদের দুর্গোৎসব উপলক্ষে প্রতিটি পুজা মন্ডপে সাজ সজ্বা করা হচ্ছে । দুর্গোৎসবকে কেন্দ্র করে সনাতন ধর্মীয় অনুসারীর নারী, পুরুষ যুবক যুবতী, কিশোর কিশোরী ও ছোট ছোট ছেলে মেয়েদের জন্য নতুন পোষক ও জুতা প্রসাধনী সামগ্রী ক্রয় করার জন্য নারী পুরুষ দল বেধে রাউজানের ফকির হাট বাজার, মুন্সির ঘাটা, গহিরা চৌমুহনী, রাউজানের নোয়াপাড়া পথের হাট, পাহাড়তলী চৌমুহনী এলাকার মার্কেট সমুহে কাপড় ও জুতা প্রসাধনী সামগ্রী ক্রয় করার জন্য ভীড় করছে প্রতিদিন। দিন যত ঘনিয়ে আসছে মার্কেটগুলোতে ক্রেতাদের ভীড় বাড়বে।

 শারদীয় দুর্গোৎসব উপলক্ষে রাউজানের নোয়াপাড়া পথের হাট, পাহাড়তলী চৌমুহনী, উনসত্তর পাড়া, কদলপুর, রাউজানের ফকির হাট বাজার, কালী বাড়ী মন্দির পশ্চিম রাউজান কুলাল পাড়ায় মৃৎ শিল্পিরা প্রতিমা তৈরী করার কাজে ব্যস্ত সময় অতিবাহিত করছেন। 

এছাড়া বেশ কয়েকটি পুজা মন্ডপে চলছে প্রতিমা তৈরীর কাজ। মৃৎ শিল্পিরা প্রতিদিন সকাল থেকে গভীর রাত পর্যন্ত প্রতিমা তৈয়ারীর কাজ করছেন । প্রতিমা তৈয়ারীর কাজ শেষ হলেও এখনো প্রতিমাগুলোতে বস্ত্র পরিধান করা ও রং লাগানোর কাজ চালিয়ে যাচ্ছে মৃৎ শিল্পিরা। 

রাউজানের ফকির হাট বাজারের পুর্ব পাশে মৃৎ শিল্পি নান্টু পাল এবারের দুর্গোৎসব ৩০টি প্রতিমা তৈয়ারীর অর্ডার নিয়েছেন বলে জানান। মৃৎ শিল্পি নান্টু পাল বলেন প্রতিটি প্রতিমা তৈয়ারী করা বাবদ ১৮ হাজার টাকা থেতে ৩০ হাজার টাকা পর্যন্ত মুল্য নিয়েছেন। 

৬ জন শ্রমিক নিয়ে প্রতিদিন সকাল থেকে গভীর রাত পর্যন্ত সময়ে মৃৎ শিল্পি নান্টু পাল প্রতিমা তৈয়ারীর কাজে ব্যস্ত সময় অতিবাহিত করছেন বলে জানান । রাউজান উপজেলা পুজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি চিকদাইর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান প্রিয়তোষ চৌধুরী বলেন গত বৎসর রাউজানে ২শত ৩০টি পুজা মন্ডপে দুর্গোৎসব পালিত হয়। এবৎসর আরো ২টি পুজা মন্ডপ বৃদ্বি পেয়ে রাউজানের ১৪টি ইউনিয়ন ও পৌরসভায় ২শত ৩২টি পুজা মন্ডপে বাঙ্গালীর প্রাণের উৎসব শারদীয় দুর্গোৎসব পালিত হবে । 

রাউজান উপজেলা নির্বাহী অফিসার জোনায়েদ কবির সোহাগ বলেন দেশের মধ্যে রাউজান উপজেলায় বেশী পরিমাণ পুজা মন্ডপে সনাতনী ধর্মীয় অনুসারীদের দুর্গোৎসব পালিত হয় । এবৎসর রাউজানে ২শত ৩২ টি পুজা মন্ডপে শারদীয় দুর্গোৎসব পালিত হবে । শারদীয় দুগোৎসব উপলক্ষে রাউজানের প্রতিটি এলাকায়, র‌্যব, বর্ডার গার্ড  পুলিশ, আনসার বাহিনীর সদস্যরা নিরাপত্তার দায়িত্বে নিয়োজিত থাকবে । 

উত্তর রাউজান ও দক্ষিন রাউজানে দুটি ম্যজিষ্ট্রেটের নেতৃত্বে আইন শৃংখলা রক্ষা বাহিনীর সদস্যদের দুটি মোবাইল টিম  সার্বক্ষণনিক টইল প্রদান করবে । সনাতন ধর্মীয় অনুসারীদের শারদীয় দুর্গেৎসব চলাকালে রেলপথ মন্ত্রনালয় সর্ম্পকিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি এবি এম ফজলে করিম চৌধুরী এমপি সহ জেলা পর্যায়ের উচ্চ পদস্থ কর্মকর্তা রাউজানের পুজা মন্ডপ পরিদর্শন করবেন ও সনাতনী ধর্মীয় অনুসারীদের দুগোৎসবে উপস্থিত হয়ে তাদের আনন্দে উৎসবে উৎসাহ প্রদান করবেন । এছাড়া ও রাউজানে প্রতি বৎসর সনাতন ধর্মীয় অনুসারীদের দুগোৎসব দেখতে দেশের বিভিন্ন এলাকা থেকে লোকজন ্আসেন রাউজানে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*