রাউজানে অগ্নিকান্ডে পুড়ে গেছে প্রায় ৫০ লাখ টাকার সম্পদ

শফিউল আলম, রাউজানবার্তা :
রাউজানে পৃথক অগ্নিকান্ডে দোকান, ঘর সহ পুড়ে গেছে প্রায় ৫০ লাখ টাকার সম্পদ।

উপজেলার ডাবুয়া ইউনিয়নের পশ্চিম ডাবুয়া মিলন দে”এর বাড়ীতে মন্ট্র দে ঘরের সামনে রাখা শুকনা ঘাষের গাদাঁয় গত ২৯ নভেম্বর শুক্রবার দিবাগত রাত সাড়ে বারটার সময়ে কে বা কাহারা আগুন লাগিয়ে দেয়। অগ্ণিকান্ডের সংবাদ পেয়ে রাউজান ফায়ার ষ্টেশনের দমকল বাহিনীর সদস্যরা দ্রুত ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে আগুন নিয়ন্ত্রনে আনতে সক্ষম হয়। আগুন থেকে ঘর বাড়ী রক্ষা পেলেও মন্টু দে’ এর শুকনা খড়ের গাদাঁটি পুড়ে ছাই হয়ে যায়।

গত ২৯ নভেম্বর শুক্রবার দিবাগত রাত একটার সময়ে রাউজান উপজেলা উপজেলার ৭নং রাউজান ইউনিয়নের মোহাম্মদপুর মাওলানা সৈয়দুল হকের বাড়ীর মাওলানা আবদুল সালামের কাচারী ঘরে অগ্নিকান্ড সংগঠিত হয়। আগুনে মাওলানা আবদুল সালামের কাচাঁরী ঘরটি পুড়ে যায়। এলাকার লোকজন উপস্থিত হয়ে পুকুর থেকে পানি দিয়ে আগুন নেভাতে সক্ষম হয়।

৩০ নভেম্বর শনিবার ভোররাত সাড়ে তিনটার সময়ে রাউজান উপজেলার রমজান আলীর হাট বাজারে অগ্নিকান্ড সংগঠিত হয়। আগুনে আবদুল মোনাফ কোম্পানীর মালিকানাধিন গাউছিায়া ডেকোরের্টাসের দোকান ও দোকানের ৪৫ লাখ টাকার মালামাল পুড়ে যায়। গাউছিয়া ডেকোরেটার্স ছাড়াও রমজান আলী হাট বাজারের লক্ষী নাথ ও রবিন্দ্র নাথের দোকান আগুনে পুড়ে যায়।

অগ্নিকান্ডের সংবাদ পেয়ে রাউজান ফায়ার ষ্টেশন থেকে দমকল বাহিনীর সদস্যরা ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে আগুন নিয়ন্ত্রনে আনতে সক্ষম হয়। রমজান আলীর হাট বাজার ও মাওলানা আবদুল সালামের কাচারীঁ ঘরে কিভাবে অগ্নিকান্ড সংগঠিত হয়েছে তা কেউ বলতে পারছেন। তবে স্থানীয়রা ধারনা করছেন দুর্বৃত্তরা ঘর ও ব্যবসা প্রতিষ্টানে আগুল লাগিয়ে দিয়েছে।

রাউজান ফায়ার ষ্টেশনের ষ্টেশণ অফিসার আশরাফুল ইসলাম বলেন রাউজানে পশ্চিম ডাবুয়ায় আগুনে শকনা খড়ের গাদাঁ পুড়ে যায়। রমজান আলীর হাট বাজারের ডেকোরেটার্সের দেকান সহ তিনটি দোকান পুড়ে যায়। অগ্ন্কিান্ডের সংবাদ পাওয়ার পর দমকল বাহিনীর সদস্যরা ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে আগুন নিয়ন্ত্রন আনায় রমজান আলীর হাট বাজারের কয়েক শতাধিক ব্যবসা প্রতিষ্টান আগুন থেকে রক্ষা পায়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*