রাউজানে অনুমতি না নিয়ে ফসলী জমিতে সরকারী প্রকল্পের টাকায় মাটি ভরাট করে সড়ক নির্মান করার অভিযোগ

শফিউল আলম, রাউজানবার্তা :

 রাউজান উপজেলার ২নং ডাবুয়া ইউনিয়নের ৮নং ওয়ার্ডের হিংগলায় সরকারী খাসঁ জমি দখল করে বসতঘগ নির্মান করে এজাহার মিয়া, এজাহারুল হক, নুরুল আবছার, ফারুক, এনাম, জুয়েল । ছয়টি পরিবার সরকারী খাসঁ টিলাভুমিতে বসতঘর নির্মান করে বসবাস করে আসছে । সরকারী খাসঁ টিলাভুমিতে বসবাসকারী পরিবারের সদস্যদের আসা যাওয়ার জন্য একটি সড়ক পুর্বে থেকে ছিল । সড়কটি অপর একটি বাড়ীর উপর দিয়ে হওয়ায় ঐ বাড়ীর লোকজন তাদের বাড়ীর উপর দিয়ে সড়কটি বন্দ্ব করে দেয়। 

স্থানীয় মেম্বার আজাদ সিকদার ছযটি পরিবারের সদস্যদের চলাচলের জন্য রাউজান উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন অফিসে ঐ এলাকায় ৩০টি পরিবার রয়েছে জানিয়ে সড়ক নির্মান করার জন্য আবেদণ করলে । রাউজান উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন অফিস থেকে সড়কটি নির্মান করার জন্য অর্থ বরাদ্ব প্রদান করে। সড়কটি মাটি দিয়ে নির্মান কাজ শুরু করলে জমির মালিক হিংগলার এলাকার বাসি›দ্বা মোহাম্মদ আলী বাবুচি, রাউজান পৌরসভার ৮নং ওয়ার্ডের সাহা মোহাম্মদ চৌধুরীর বাড়ীর বাসি›দ্বা তানভীর তাদের জমির উপর দিয়ে সড়ক নির্মানে বাধা দেয় । 

জমির মালিকদের বাধা উপেক্ষা করে স্থানীয় মেম্বার আজাদ সিকদার ফসলী জমি ভরাট করে সড়ক নির্মান কাজ করছেন বলে অভিযোগ কওে জমির মালিক মোহাম্মদ আলী বাবুচি বলেন সরকারী খাসঁ টিলা ভুমিতে বসবাসকারী এজাহার মিয়া তার চলাচলের জন্য আমার ও তানভীরের পিতা মৃত নুরুল আলম চৌধুরীর কাছ থেকে মেখিক ভাবে অনুমতি নিয়ে ফসলী জমির উপর একটি আইল দিয়ে চলাফেরা করতো । 

জমির মালিক তানভীর ও মোহাম্মদ আলী বাবুচি অভিযোগ করে বলেন আমাদের সাখে কোন কথা না বলে কোন প্রকার সম্মতি না নিয়ে আমাদের মালিকানা জমির উপর মাটি ভরাট করে স্থানীয় মেম্বার সরকারী প্রকর্পৈর টাকা দিয়ে সড়ক নির্মান করছে । জমির উপর মাটি ভরাট করে সড়ক নির্মানে বাধা দিলে আমাদের বাঁধা না মেনে জোর পুর্বক জমির উপর দিয়ে মাটি ভরাট করে সড়ক নির্মান করছে স্থানীয় মেম্বার আজাদ সিকদার । জমি ভরাট করে সড়ক নির্মান কাজে বাঁধা দেওয়ায় স্থানীয় মেম্বার আজাদ সিকদার জমির মালিক মোহাম্মদ আলী বাবুচি ও তানভীরকে বিভিন্ন প্রকার হুমকি প্রদান করছে বলে অভিযোগ করেন জমির মালিকেরা । যাদের বসতবাড়ীতে চলাচলের জন্য ফসলী জমি মাটি ভরাট করে সড়ক নির্মান করা হচ্ছে তাদের মধ্যে এজাহার মিয়া রাউজান থানা ও র‌্যাবের তালিকভুক্ত সন্ত্রাসী হিংগলা ওয়ারা পুঞ্ঞা বৌদ্ব অনাথ আশ্রমের পরিচালক জ্ঞান জ্যেতি ভিক্ষু হত্যা মামলার আসামী জহুর মিয়ার ভগ্নিপতি । 

এব্যাপারে রাউজান উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন অফিসার নিয়াজ মোরশেদকে ফোন করে জানতে চাইলে রাউজান উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন অফিসার নিয়াজ মোরশেদ বলেন স্থানীয় মেম্বার আজাদ সিকদার সড়ক নির্মান করার প্রকল্প দেওয়ায় সড়ক নির্মানের জন্য মাটি কাঠা হচ্ছে । মালিকানাধীন ফসলী জমির উপর দিয়ে মাটি ভরাট করে সড়ক নির্মান কাজে জমির মালিকেরা আমি ও রাউজান উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কাছে অভিযাগ করলে তদন্ত করে সরকারী ভাবে সড়কের নামে জায়গা না থাকলে মাটি ভরাট করে সড়ক নির্মান কাজ বন্দ্ব করে দেওয়া হবে ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*