কাগতীয়ার পীর মুনির উল্লাাহ ও তার আত্মীয় কায়েস চৌধুরীর বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলন

শফিউল আলম, রাউজানবার্তা :

মুনিরীয়া যুব তবলীগ কমিটি বাংলাদেশের পৃষ্ঠপোষক রাউজান কাগতিয়া দরবারের পীর মুনির উল্লাহ ও তার এক আত্মীয় মোহাম্মদ কায়েস চৌধুরীর বিরুদ্ধে নিরহ মানুষের জায়গা দখলের অভিযোগ করে চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাবে সাংবাদিক সম্মেলন করেছে। 

 ১৫ মার্চ রবিবার প্রেস ক্লাবের এস. রহমান হলে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে আয়োজকগণ দাবি করেন পীর পরিচয়ধারী মুনির উল্লাহও তার আত্মীয় মোহাম্মদ কয়েস চৌধুরী বায়েজিদ থানাধীন বাংলাবাজার এলাকার অনেকে মানুষের সম্পত্তি জবরদখল করেছে। 

তারা মাদরাসার নামে জমি কেনার চুক্তি করে মালিককে টাকা না দিয়ে জমি থেকে উচ্ছেদ করেছে মুনিরীয়া যুব তবলীগের ব্যানারে থাকা সন্ত্রাসী বাহিনী ব্যবহার করে। 

সাংবাদিক সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে মাওলানা মুহাম্মদ ইমরান নামের এক ভূমি মালিক বলেন ‘কাগতিয়ার তথাকথিত পীরের পৃষ্ঠপোষকতায় থাকা সন্ত্রাসীরা জালালাবাদ মৌজায় তার তিন কানি সম্পত্তি জবর দখল করে রেখেছে। তারা মাদরাসা প্রতিষ্ঠার নামে ২০১১ সালে সম্পত্তি ক্রয়ের চুক্তিপত্র করলেও চুক্তির অনুসারে টাকা পরিশোধ না করে ওই সম্পত্তি জবরদখল করে রেখেছে। 

তার অভিযোগ সন্ত্রাসী ব্যবহার করে নীরহ মানুষের সম্পত্তি দখল করতে বিশেষ ভূমিকা পালন করেছেন মুনির উল্লাহ’র আত্মীয় কায়েস চৌধুরী। 

সাংবাদিক সম্মেলনে উপস্থিত থাকা আরো অনেকেই মুনির উল্লাহ ও কায়েস চৌধুরীর বিরুদ্ধে নানা অভিযোগ করে তাদের শাস্তি দাবি করেন। তাদের হারানো সম্পত্তি উদ্ধার করতে প্রশাসনের সহযোগিতা কামনা করেন। 

মুহাম্মদ ইমরান তার লিখিত বক্তব্য আরো বলেন সম্পত্তি জবর দখল, বিনা পনে আত্মসাতের অপচেষ্ঠা, চুক্তি করে চুক্তি ভঙ্গেও মতো জঘন্য ধর্মীয় বিধি বিধানের বরখেলাপ দুনিয়া ও আখেরাতের উভর জাহানে ইহার নতিজা ভোগ করতে হবে বলে আল্লাহ এবং হুজুর পাক (স.) সুস্পষ্ট নির্দেশনা দিয়েছেন। সে অবস্থায় নিজেকে গাউছুল আজম দাবি করে ইলম ও আমলের মধ্যে পার্থক্য করে পরের হক হরন করে কিভাবে মুনির উল্লাহ পীর হন এবং ধর্মপ্রচার করেন তা বিবেচ্য বিষয়। 

সংবাদ সম্মেলনে মাওলানা মুহাম্মদ ইমরান ছাড়াও অভিযোগকারীদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন মোহাম্মদ  খোরশেদ, মোহাম্মদ মেজাম্মেল, মোহাম্মদ কবির, মোহাম্মদ মাহবুব, মোহাম্মদ আবুল হোসেন, মোহাম্মদ সাইফুল প্রমুখ। তারা সবাই বায়জিদ, বাংলাবাজার ও হাটহাজারী এলাকার বাসিন্দা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*