রাউজানে কৃষক বিশুর জমিতে বোরো ধানের বাম্পার ফলন, সফলতা লাভ ডেইরী ফার্ম ও মাছ চাষে

শফিউল আলম, রাউজানবার্তা : 

রাউজান উপজেলার ১০ নং পুর্ব গুজরা ইউনিয়নের আধার মানিক এলাকার কৃষক পিযুষ কান্তি চৌধুরী বিশু আমন ধানের মৌসুমে ৮০ একর জমিতে বোরো ধানের চাষাবাদ করে। বোরো ধানের মৌসুমে ও বিপুল পরিমান জমিতে বোরো ধানের চাষাবাদ করেন । কৃষক পিযুষ কান্তি চৌধুরী বিশুর কাছে রয়েছে চারটি সেচ পাম্প, ৬টি পাওয়ার টিলার, দটি ধান মাড়াইয়ের মেশিন, দুটি ধান কাটার নিপার মেশিন। কৃষক পিযুষ কান্তি চৌধুরী বিশুকে চাষাবাদের জন্য বাংলাদেশ কৃষি উন্নয়ন করের্পারেশন বি, এ, ডি, সি বাড়িড পাইপ দিয়ে জমিতে সেচের ব্যবস্থা করে দেয় । প্রতি বৎসর আমন ধান ও বোরা ধানের চাষ করে কৃষক পিযুষ কান্তি চৌধুরী বিশু শত শত মেট্রিক টন ধান উৎপাদন করেন। 

কৃষক পিযুষ কান্তি চৌধুরী বিশু বিপুল পরিমাণ জমিতে ধানের চাষাবাদ করা ছাড়া ও ডেইরী ফাম করে ডেইরী ফার্মে শতাধিক উন্নত জাতের গরু লালন পালন করেন। ডেইরী ফার্ম থেকে কৃষক বিশু শতাধিক লিটার দুধ উৎপাদন করেন। কৃষক বিশু ১৬টি পুকুরে মাছ চাষ করে প্রতি বৎসর কোটি টাকার মাছ উৎপাদন করেন। কৃষক বিশুর চাষাবাদ ডেইরী ফার্ম, মাছ চাষের প্রকল্পে ২০ জন কর্মচারী রয়েছে । এবারের শুস্ক মৌসুমে কৃষক বিশু ২২ একর জমিতে বোরো ধানের চাষাবাদ করেন। 

২২ একর জমির মধ্যে ৫ একর জমিতে রাউজান উপজেলা কৃষি সম্প্রসালন অধিদপ্তরের সহায়তায় ব্রি –ধান ৫৮ জাতের বোরা ধান বীজ উৎপাদন প্রর্দশনী করেন। বোরো ধান বীজ উৎপাদন প্রর্দশনীতে বীজ, সার, কীটনাশক রাউজান উপজেলা কৃষি সম্প্রসারন অধিদপ্তর থেকে প্রদান করা হয়। 

কৃষক পিযুষ কান্তি চৌধুরী বিশু বলেন, ৫ একর বোরা ধানের বীজ উৎপাদন প্রর্দশণী সহ ২২ একর জমিতে বোরো ধানের চাষাবাদে কৃষক বিশুর খরচ হয় ৫ লাখ ৫০ হাজার টাকা। বোরো ধানের ফলন ভাল হয়েছে । ২২ একর জমির বোরো ধানের চাষাবাদ থেকে ৫০ মেট্রিক টন ধান উৎপাদন হবে। প্রতি টন ধান সরকারী মুল্যে ২৬ হাজার টাকা করে বিক্রয় করলে কৃষক বিশু তার বোরো ধানের চাষাবাদের জমি থেকে উৎপাদিত বোরো ধান বিক্রয় করে ১৩ লাখ টাকা পাবে। সরকার ছাড়া ও বাজারে বিক্রয় কলে কৃষক বিশু প্রতি মেটিক টন বোরো ধান ১৭ হাজার টাকা করে বিক্রয় করলে ৫০ মেট্রিক টান ধান বিক্রয় করে কৃষক বিশু ৮ লাখ ৫০ হাজার টাকা পাবে। কৃষক বিশু বোরো ধানের চাষাবাদ করে তার খরচ বাদ দিয়ে ধান বিক্রয় করে তার লাভ হবে সরকারী ভাবে বিক্রয় করলে ৭ লাখ ৫০ হাজার টাকা। সরকারী ছাড়া বাজারে বিক্রয় কললে তার খারচ বাদ দিয়ে লাভ হবে ৩ লাখ টাকা । 

কৃষক বিশুর বোরো ধানের চাষাবাদে ভাল ফলন হওয়ায় ও সরকারী ভাবে প্রতি কেজি ২৬ টাকা করায় কৃষক বিশু আনন্দে আত্মহারা হয়ে উঠেছে । 

রাউজানের পুর্ব গুজরা ইউনিয়নের উপ সহকারী কৃষি অফিসার মুহাম্মদ বখতোয়ার বলেন, কৃষক বিশু রাউজানে একমাত্র কৃষক বিপুল পরিমান জমিতে  চাষাবাদ করেন। কৃষক বিশুকে বোরো ধানের চাষাবাদের মৌসুমে ৫একর জমিতে রাউজান উপজেলা কৃষি সম্প্রসারন অধিদপ্তরের সহায়তায় ব্রী– ধান ৫৮ জাতের বোরো ধান বীজ উৎপাদন প্রর্দশনী করা হয়। ৫ একর প্রর্দশনী সহ ২২ একর জমিতে কৃষক বিশু বোরো ধানের চাষাবাদ করেন। ধানের ফলন ভাল হয়েছে। 

রাউজান উপজেলা কৃষি অফিসার শাব্বির আহম্মদ বলেন কৃষক বিশু একজন রাউজানের নামকরা কৃষক। কৃষক বিশু বিপুল পরিশান জমিতে আমন ধান ও বোরো ধানের চাষাবাদ করে বিপুল পরিমাণ ধান উৎপাদন করেন। কৃষক বিশু ২২ একর জমিতে বোরো ধানের চাষাবাদ করে চলতি বোরো ধানের মৌসুমে ধানের ফলন ভাল হয়েছে । কৃষক বিশুর বোরো ধানের চাষাবাদের ২২ একর জমির মধ্যে ৫ একর জমিতে কৃষি সম্প্রসারন অধিদপ্তরের সহায়তায় ব্রী ধান– ৫৮ জাতের বোরো ধান বীজ উৎপাদন প্রদর্শনী করা হয়েছে । রাউজানের হলদিয়া ইউনিয়ন, ডাবুয়া, রাউজান ইউনিয়ন ও রাউজান পৌরসভার দলিলাবাদ, পুর্ব গুজরা ইউনিয়নের আধার মানিক এলকার কৃষক পিযুষ কান্তি চৌধুরী বিশু জমিতে ৫টি বোরো ধান বীজ উৎপাদন প্রর্দশণী করা হয়েছে । ব্রী ধান – ৫৮ জাতের ৫টি প্রর্দশনীতে ২৫ একর জমি থেকে উৎপাদিত ধান বীজ হিসাবে সংগ্রহ করা হবে । 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*