রাউজান পৌরসভা নির্বাচন : আওয়ামী লীগ সরব, নিরব বিএনপির প্রার্থীরা

শফিউল আলম, রাউজানবার্তা :

আসন্ন রাউজান পৌরসভার নির্বাচনকে কেন্দ্র করে রাউজানের বিভিন্ন এলাকায় হাট বাজার আফিসে চায়ের দোকানে চলছে সাধারন মানুষের মধ্যে জল্পনা কল্পনা রাউজান পৌরসভার মেয়র পদে কে আসছেন! কে হচ্ছেন রাউজান পৌরসভার মেয়র । 

আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন কে পাচ্ছে। বিএনপি থেকে কোন প্রার্থী মেয়র পদে নির্বাচন করবে। সকাল থেকে গভীর রাত পর্যন্ত সময়ে সাধারন মানুষের মধ্যে চলছে নানা জল্পনা কল্পনা। 

আওয়ামী লীগের দলীয় মেয়র পদ প্রত্যাশী রাউজান উপজেলা যুবলীগের সভাপতি রাউজান পৌরসভার ২য় প্যনেল মেয়র জমিরউদ্দিন পারভেজ রাউজান পৌরসভার প্রতিটি এলাকায় জনগনের সাথে মতবিনিময় করে পৌর নির্বাচনে মেয়র পদে সাধারনমানুষের সর্মর্থন পাওয়ার প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন |

মতবিনিময় সভায় ও উপজেলা আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগ, শ্রমিক সমাবেশে রাউজান পৌরসভার ২য় প্যনেল মেয়রজমির উদ্দিন পারভেজকে রাউজান পৌরসভার মেয়র পদে আওয়ামী লীগের দলীয় মনোয়ন প্রদানের জন্য প্রধান মন্ত্রী শেখহাসিনা সহ আওয়ামী লীগের শীর্ষ পর্যায়ের নেতাদের কাছে দাবী জানিয়ে আসছেন আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগের নেতা ওবিভিন্ন সামাজিক সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতারা। রাউজান পৌরসভার মেয়র পদে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী রাউজানপৌরসভার ২য় প্যনেল মেয়র জমির উদ্দিন পারভেজ সকাল থেকে গভীর রাত পর্যন্ত সময়ে রাউজান পৌরসভার বিভিন্ন এলাকায়মতবিনিময় সভা ও বিবাহ মেজবান, সামাজিক সাংস্কৃতিক সংগঠনের অনুষ্টানে উপস্থিত হয়ে পৌরবাসীর সর্মর্থন আদায়ে ব্যস্তসময় অতিবাহিত করছেন। 

রাউজান পৌরসভার ২য় প্যনেল মেয়র জমির উদ্দিন পারভেজ রাউজান কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি, রাউজান  উপজেলাছাত্রলীগের সভাপতির দায়িত্ব পালন করা অবস্থায় বিএনপি জামাত জোট সরকার ও এনডিপির সন্ত্রাসীদের হামালা মামলার শিকার হয়। 

বর্তমানে জমির উদ্দিন পারভেজ রাউজান উপজেলা যুবলীগের সভাপতির দায়িত্ব পালন করছেন। জমির উদ্দিনপারভেজ রাউজান পৌরসভার প্রতিষ্টালগ্ন থেকে পর পর চার বার রাউজান পৌরসভার ৯নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর নির্বাচিত হয়।জমির উদ্দিন পারভেজ এছাড়া ও রাউজান মহিলা মার্দ্রাসা, জঙ্গল রাউজান সরকারী মাধ্যমিক বিদ্যালয়, রাউজান সুরেশবিদ্যায়তন পরিচালনা কামিটির সভাপতির দায়িত্ব পালন করছেন। 

রাউজান পৌরসভার ২য় প্যনেল মেয়র জমির উদ্দিন পারভেজ দেশের শ্রেষ্ট বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি, বৃক্ষরোপেনদেশের মধ্যে শ্রেষ্ট হিসাবে পর পর তিনবার জাতীয় পদখ গ্রহন করেছেন প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনার হাত থেকে। করোনার প্রার্দুভাবশুরু হওয়ার পর থেকে রাউজানের সাংসদ ফজলে করিম চৌধুরী ও সাংসদ পুত্র ফারাজ করিম চৌধুরীর নেতৃত্বে রাউজানে দরিদ্রকর্মহীন পরিবারের সদস্যদের খাবার বিতরন, করোনার উপস্বর্গ ও করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরনকারী নারী পুরুষের দাফনসনাতনী ধর্মীয় অনুসারীদের সৎকার করার মাধ্যমে রাউজানের সাধারন মানুষের কাছে একজন জনপ্রিয় তো হিসাবে পরিচিতলাভ করে। 

রাউজান পৌরসভার মেয়র পদে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী রাউজান পৌরসভার প্যনেল মেয়র জমির উদ্দিন পারভেজবলেন, আমি রাউজান পৌরসভার সাধারন মানুষের দুঃসময়ে দলের দুঃসময়ে জীবনের ঝুকিঁ নিয়ে কাজ করেছি । রাউজানেরসাধারন মানুষ আমাকে ভালবাসে । আগামী পৌরসভার নির্বাচনে রাউজান পৌরসভার নির্বাচনে মেয়র পদে দলের মনোনয়নপেতে চাই। আমাকে রাউজান পৌরসভার মেয়র নির্বচিত করলে রাউজান পৌরসভাকে একটি আধুনিক পৌরসভা হিসাবে গড়েতোলবো। 

রাউজান পৌরসভার নির্বাচনে চট্টগ্রাম উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক বর্তমান মেয়র দেবাশীষপালিত ও আবারো মেয়র পদে আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন পাওয়ার প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন।

 রাউজান পৌরসভার মেয়রদেবাশীষ পালিত বলেন, আমি রাউজান পৌরসভার মেয়র হওয়ার পর রাউজান পৌরসভার উন্নয়নের জন্য যথাসাধ্য চেষ্টাকরেছি। আমি বর্তমান মেয়র। আমাকে গত নির্বাচনে আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন দিয়েছে। এবার ও দলীয় মনোনয়নদিলে আমি রাউজান পৌরসভার মেয়র পদে নির্বাচন করবো। 

রাউজান পৌরসভার সাবেক মেয়র ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি মরহুম শফিকুল ইসলাম চৌধুরীর পুত্রসাইফুল ইসলাম চৌধুরী রানা, নির্বচানে দলের মনোনয়ন পেতে লবিং চালিয়ে যাচ্ছেন । সাইফুল ইসলাম চৌধুরী রানা বলেন, আসন্ন রাউজান পৌরসভা নির্বাচনে আমি একজন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী। আমার বাবা রাউজানউপজেলা আওয়ামী লীগ’র আমৃত্যু সভাপতি ও সাবেক পৌর মেয়র মরহুম শফিকুল ইসলাম চৌধুরী বেবী আওয়ামী লীগ’রত্যাগী ও পরীক্ষিত নেতা ছিলেন। তিনি আওয়ামী লীগে’র জন্য যেমন সম্মানিত হয়েছেন, তেমনি আদর্শিক রাজনীতির কারণেদলকেও সম্মানিত করেছেন। এছাড়া আমি নিজেই ছাত্র রাজনীতি থেকে দলের একজন পরীক্ষিত কর্মী। আমি বিশ্বাস করিমাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা যেভাবে দেশব্যাপী সৎ ও সঠিক নেতৃত্ব  প্রতিষ্ঠিত করছেন তার অংশ হিসেবে তিনিআমাকে মনোনীত করবেন। আর মনোনয়ন পেলে পৌরবাসীর সমর্থন নিয়ে আমার উপর সকলের আস্থার প্রতিদান দিতে আমিদৃঢ প্রতিজ্ঞ। নির্বাচত হলে সততা, স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতার মাধ্যমে আমি রাউজান পৌরসভা ও পৌরবাসীর প্রত্যাশা পূরণেঅঙ্গীকারবদ্ব।

 রাউজান পৌরসভার নির্বাচনে রাউজান উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি কেন্দ্রীয় যুবলীগের সদস্য আ,স,ম ইয়াসিনমাহমুদ রাউজান পৌরসভার নির্বাচনে মেয়র পদে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেতে শীর্ষ পর্যায়ের নেতাদের কাছে লবিং চালিয়েযাচ্ছেন। রাউজান উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি আ, স,ম ইয়াসিন মাহমুদ বলেন, রাউজান পৌরসভার নির্বাচনে মেয়রপদে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেতে প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি দলের মনোনয়ন পেলে রাউজান পৌরসভার মেয়র পদে নির্বচনকরবো। 

রাউজান পৌরসভার নির্বাচনে মেয়র পদে বিএনপির কোন কোন মেয়র প্রার্থীর তৎপরতা দেখা না গেলে ও রাউজান পৌরসভাবিএনপির সাবেক আহবায়ক আবু জাফর চৌধুরী, রাউজান পৌরসভার সাবেক মেয়র বিএনপি নেতা মরহুম কাজী আবদুল্লাহআল হাসানের পুত্র বিএনপি নেতা কাজী সোহেল, বিএনপি নেতা সেকান্দর হোসেন চৌধুরী, জাতীয় পাটি নেতা সাবেকচেয়ারম্যান মেজবাহউদ্দিন আকবর চৌধুরী আগামী পৌরসভার নির্বচনে রাউজান পৌরসভার মেয়র পদে নির্বাচন করবেন বলেএলাকায় গুঞ্জন রয়েছে। 

বিএনপি নেতা সেকান্দর হোসের চৌধুরী বলেন, আমি রাউজান পৌরসভার আসন্ন নির্বাচনে মেয়র পদে দল থেকে মনোনয়নপাওয়ার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি । দল থেকে আমাকে মনোনয়ন দিলে আমি মেয়র পদে নির্বাচন করবো। বিএনপি নেতা সেকান্দরহোসেন চৌধুরী আরো বলেন, বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতা সাবেক মন্ত্রী আবদুল্ল্যাহ আল নোমান গত ১৯৭৩ সালের সংসদনির্বাচনে ভাসানী ন্যাপ থেকে ধানের শীষ প্রতিক নিয়ে সংসদ সদস্য পদে নির্বাচন করেন । আমি ঐ সময়ে তার নির্বাচনীপ্রচারনায় কাজ করেছি। 

রাউজানের পশ্চিম গহিরা, দক্ষিন গহিরা, অংকুরী ঘোনা, বদুর ঘোনা, মঘাশস্ত্রী বড়ুয়া পাড়া, গহিরা মাইজ পাড়া, গহিরাচৌমুহনী, মোবারক খীল, পুর্ব গহিরা, পশ্চিম সুলতান পুর, সন্দ্বীপ পাড়া, সুলতান পুর কাজী পাড়া, জগৎ মল্ল পাড়া, বণিক পাড়া, জলদাশ পাড়া, বেরুলিয়া, নন্দী পাড়া, বড়বাড়ী পাড়া, সুলতানপুর, ছত্র পাড়া,দলিলাবাদ, সাপলঙ্গা, সাহানগর, সুলতান পুরছিটিয়া পাড়া দাশ পাড়া, পালিত পাড়া, শরীফ পাড়া, ঢেউয়া পাড়া,হাজী পাড়া, পশ্চিম রাউজান, বাইন্যা পুকর, আইলী খীল, ওয়াহেদের খীল, ফকির তকিয়া পাড়া, রহমত পাড়া, ঢালার মুখ, পুর্ব রাউজান, রাউজান রাবার বাগান, কাজী পাড়া  এলাকাকেনিয়ে ৪৪ বর্গকিলোমিটার আয়তনের রাউজান পৌরসভা গঠন করেন গত ১৯৯৮ সালে। 

রাউজান পৌরসভা গঠিত হওয়ার পর রাউজান উপজেলা আওয়ামী লীগের তৎকালিন সভাপতি মরহুম শফিকুল ইসলামচৌধুরীকে পৌর প্রশাসক নিয়োগ দিয়ে রাউজান পৌরসভার কার্যক্রম শুরু করা হয় । ১৯৯৮ সালে তৎকালীন স্থানীয় সরকারপল্লী উন্নয়ন সমবায় মন্ত্রী পরবর্তী রাষ্ট্রপতির দায়িত্ব পালন কারী মরহম জিল্লুর রহমান রাউজান পৌরসভার উদ্বোধন করেন ।পরবর্তী ১৯৯৯ সালে রাউজান পৌরসভার নির্বাচনে রাউজান পৌরসভার বর্তমান মেয়র দেবাশীষ পালিত রাউজান পৌরসভারমেয়র নির্বাচিত হয়। 

২০০৪ সালের ৬ এপ্রিল রাউজান পৌরসভার ২য় নির্বাচনে পুনরায় রাউজান উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মরহুমশফিকুল ইসলাম চৌধুরী মেয়র নির্বাচিত হয়। গত ২০১০সালে রাউজান পৌরসভার নির্বাচনে বিএনপির প্রার্থী চট্টগ্রাম উত্তরজেলা বিএনপির সচিব  মরহুম কাজী আবদুল্লাহ আল হাসান পৌর মেয়র নির্বাচিত হয়। গত ২০১৫ সালের ৩০ ডিসেম্বররাউজান পৌরসভার নির্বাচনে বর্তমান মেয়র আওয়ামী লীগের প্রার্থী দেবাশীষ পালিত পৌর মেয়র নিবার্চিত হয় ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *