মুনিরীয়ার সন্ত্রাসীদের গ্রেপ্তার দাবীতে আবারও সড়ক অবরোধ, বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ


নিজস্ব প্রতিবেদক, রাউজানবার্তা :

চট্টগ্রামের রাউজানে মুনিরীয়া যুব তাবলীগ কমিটির দায়ী কর্মীদের গ্রেপ্তারের দাবীতে আবারও সড়ক অবরোধ করলেন বিক্ষুব্ধ দক্ষিণ রাউজানের সর্ব স্তরের জনসাধারণ।

আজ রোববার বিকেলে রাউজান সদর ইউনিয়ন আওয়ামলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মোহাম্মদ মোজাম্মেল হোসেন (৪০) ও স্থানীয় মুক্তিযোদ্ধার শফিকুল আনোয়ারসহ বিভিন্ন সময় অন্যান্য মানুষের উপর মুনিররীয়া যুব তাবলীগ কমিটির কর্মীদের হামলার ঘটনার প্রতিবাদ ও দায়ীদের গ্রেপ্তার পুর্বক শাস্তির দাবী জানিয়ে সড়ক অবরোধ করা হয়। সড়ক অবরোধ করে সড়কের উপর চলে বিক্ষোভ সমাবেশ, মিছিল ও মানবন্ধন। রোববার বেলা ১ টা থেকে হাজারো মানুষ নোয়াপাড়া পথেরহাটে এসে জমায়েত হতে থাকে। বিকেল ৩ টা থেকে সড়ক অবরোধ করে শুরু হয় মানববন্ধন, বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ।

প্রায় অড়াই ঘণ্টা পর বিকেল সাড়ে ৫ টায় সমাবেশের মাধ্যমে কর্মসূচি সমাপ্ত হলে যান চলাচল স্বাভাবিক হয়। বিক্ষোভ মিছিল থেকে কাগতিয়া দরবার ও মুনিরীয়া যুব তাবলীগ কমিটিকে জঙ্গি আস্তানা হিসেবে শ্লোগান দেওয়া হয়। প্রশাসনকে দ্রুত বিভিন্ন সময় বিভিন্ন মানুষের উপর তরিকত ভিত্তিক এ সংগঠনের কর্মীদের হামলায় দায়ীদের গ্রেপ্তারের আহবান জানানো হয়। অন্যথায় কঠোর আন্দোলন গড়ে তুলো হবে বলে হুসিয়ারী উচ্চারণ করেন। দক্ষিণ রাউজান সর্বস্তরের জনসাধারণের ব্যানারে এ কর্মসূচি পালন করা হয়।

যানজটে আটকে পড়া ওয়াহিদুল আলম বলেন, এক ঘণ্টা ধরে গাড়ীতে আটকে আছি। কখন গাড়ী ছাড়বে গন্তব্য কাপ্তাই কখন পৌছাবো কিছই বুঝতে পারছিনা।

সরেজমিন দেখা যায় রোববার বেলা ৩ টা থেকে রাউজানের নোয়াপাড়া ইউনিয়নের পথেরহাটে চট্টগ্রাম কাপ্তাই সড়কের উপর গাছের গুড়ি ফেলে গাড়ী চলাচল বন্ধ করে দেওয়া হয়। এতে সড়কের দু পাশে শত শত যানবাহন আটকে পড়ে দুর্ভোগে পড়েন যাত্রীরা। দক্ষিণ রাউজানের সর্বস্তরের জনসাধারণের ব্যানারে এ মানব বন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিল আয়োজন করা হয়। বিকেল সাড়ে ৫ টার দিকে অনুষ্ঠিত হয় একটি বিক্ষোভ সমাবেশ।

নোয়াপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান মনিরুল ইসলামের সভাপতিত্বে ও মুহাম্মদ হানিফের সঞ্চালনায় এতে বক্তব্য দেন চট্টগ্রাম উত্তরজেলা আওয়ামীলীগের সদস্য দিদারুল আলম, নোয়াপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান বাবুল মিয়া মেম্বার, অধ্যক্ষ মাওণলানা ইলিয়াছ নুরী, ইসলামী ফ্রন্ট চট্টগ্রাম মহানগর শাখার সাধারণ সম্পাদক নাছির উদ্দিন মাহমুদ, আলহাজ আবু বক্কর সওদাগর, আহমেদ সৈয়দ, আজিজুল হক, অধ্যক্ষ ওমর ফারুক, ইসলামী ফ্রন্ট নেতা মাওলানা জিল্লুর রহমান হাবিবী, আমান উল্লাহ আমান, ২০০৮ সালে মুনিরীয়া তাবলীগ কর্তৃক হামলার শিকার মঈনুদ্দিন রেজবী, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক সম্পাদক জাহাঙ্গীর সিকদার, এম বেলাল উদ্দিন, উপজেলা যুবলীগের সহ সভাপতি জাহাঙ্গীর আলম, অর্থ সম্পাদক আজম রাশেদ, প্রচার সম্পাদক দিদারুল আলম, সদস্য জসিম উদ্দিন, ইউপি সদস্য জাহাঙ্গীর আলম, হাবিবুল ইসলাম চৌধুরী, অধ্যাপক সৈয়দ জামাল উদ্দিন, কামাল উদ্দিন, শফিউল আজম কোম্পানী, সেকান্দর হোসেন, এস এম হাফিজুর রহমান, কাউসার উদ্দিন লিটন, নুরুল ইসলাম, অধ্যক্ষ মাওলানা শওকত হোসেন রেজবী, জাহেদুল হক, মফিজুল আলম শাহ, হাফেজ সালাহ উদ্দিন, নুর আহমেদ, মাওলানা অলিয়র রহমান, নওশাদ হোসাইন, আব্দুল্লাহ আল মামুন, ইউনুছ আলম প্রমুখ।

সমাবেশে বক্তারা বলেন, মুনিরীয়া যুব তাবলীগ কমিটি একটি জঙ্গী সংগঠন। এ সংগঠনের কর্মীদের হাত থেকে ধর্মীয় বক্তা থেকে শুরু করে রাজনৈতিক নেতা, মুক্তিযোদ্ধা, শিশুসহ সকল শ্রেণীর মানুষ বিভিন্ন সময় ধারাবাহিকভাবে হামলার শিকার হয়ে আসছে। বক্তারা বলেন, এই মুনিরীয়ার সঙ্গে আর্ন্তজাতিক জঙ্গি সংগঠন আইএসের কোন সম্পৃক্ততা আছে কিনা খতিয়ে দেখা দরকার প্রশাসনের। অন্যথায় এ দেশকে তারা সন্ত্রাসীর রাজত্বে পরিণত করে তুলবে।

স্থানীয় প্রত্যক্ষদর্শী ও পুলিশের সঙ্গে কথা বলে জানাগেছে, মোজাম্মেল মুহাম্মদপুর মহিউল উলুম সিনিয়র মাদ্রাসা পরিচালনা কমিটিরও সহ সভাপতি। এ মাদ্রাসায় গত বুধবার মুনিরীয়া যুব তবলীগ কমিটি বাংলাদেশ নামের একটি ধর্মীয় সংগঠন সেমিনারের আয়োজন করে। সেমিনার করার জন্য মাদ্রাসা পরিচালনা কমিটির কোন অনুমতি নেয়া হয়েছে কীনা আয়োজক কমিটির কাছে জানতে চান মোজাম্মেল। একারণে ক্ষুব্ধ হয়ে মুনিরীয়া যুবলীগ কমিটির সদস্যরা হামলা চালান। এসময় তার সঙ্গে ছিলেন স্থানীয় মুক্তিযোদ্ধা শফিকুল আনোয়ার। তাঁকেও হামলা করে মুনিরীয়ার উগ্র কর্মীরা।

রাউজান থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কেপায়েত উল্লাহ বলেন, মুনিরীয়া যুব তাবলীগ কমিটির বিরুদ্ধে এ ঘটনায় পর থেকে মোট ৬টি মামলা হয়েছে। আহলে সুন্নাত ওয়াল জামায়াত কেন্দ্রীয় পরিষদের সদস্য সচিব এডভোকেট মোসাহেব উদ্দিন বখতিয়ারও হামলার শিকার হয়ে মামলা করেছেন মুনিরীয়ার বিরুদ্ধে। এসব মামলার আসামীদের ৫জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। বাকী আসামীদের ধরতে পুলিশ অভিযান চালাচ্ছে।

নিউজ ও বিজ্ঞাপনের জন্য যোগাযোগ করুন:

শফিউলআলম, প্রধানসম্পাদক

সাহেদুর রহমান মোরশেদ, সম্পাদক ও প্রকাশক

মোবাইল- ০১৮১৮-১১৭৪৭০

ইমেইল: raozan786@gmail.com

raozanbarta24. com

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*